বিবাহে আগ্রহীদের জন্য ইসলামিক ডেটিং অ্যাপ ‘হামদান’

বিজ্ঞাপন

নতুন একটি ডেটিং অ্যাপ চালু করেছে ইরান। অ্যাপটির মাধ্যমে নারী পুরুষ বিয়ে করার জন্য পরস্পরের সঙ্গে পরিচিত হবার সুযোগ পাবেন। এর লক্ষ্য হচ্ছে বিবাহিত দম্পতিদের বিয়ে দীর্ঘস্থায়ী করা। কারণ, দেশটিতে বিবাহ বিচ্ছেদের হার ক্রমশ বাড়ছে। এছাড়া শিশু জন্মের হারও কমে যাচ্ছে।

ইসলামিক এই অ্যাপের নাম হামদান। হামদান ফারসি শব্দ। এর অর্থ ‘সঙ্গী’। ইসলামিক মূল্যবোধ প্রচারের লক্ষ্যে গঠিত ইসলামিক প্রোপাগান্ডা অর্গানাইজেশান নামে একটি সংস্থার উদ্যোগে এই অ্যাপটি তৈরি করা হয়েছে।

দাবি করা হচ্ছে, এই অ্যাপটি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার প্রযুক্তি ব্যবহার করে ‘শুধু স্থায়ী বৈবাহিক সম্পর্কে আগ্রহী অবিবাহিত পুরুষদের’ জন্য সঠিক জীবনসঙ্গী খুঁজে দেবে এবং একমাত্র স্ত্রী হবেন এমন পাত্রী খুঁজে দেবে।

ইরানে নারী ও পুরুষ সঙ্গী খোঁজার জন্য ডেটিং অ্যাপসগুলো বেশ জনপ্রিয়। কিন্তু এখন থেকে শুধু বৈধ ডেটিং অ্যাপ হিসাবে ব্যবহার করা যাবে ‘হামদান’।

হামদানের ওয়েবসাইট বলছে, অ্যাপ আগে ব্যবহারকারীদের পরিচয় যাচাই করা হবে এবং জীবনসঙ্গী খোঁজার কাজ শুরু করার আগে তাদের মনস্তাত্ত্বিক অবস্থার পরীক্ষা দিতে হবে।

হামদান অ্যাপ যখন বিয়ে করতে আগ্রহী এমন পুরুষ ও নারী জীবনসঙ্গী খুঁজে পাবে যারা একে অন্যের জন্য উপযুক্ত, তখন ছেলে ও মেয়ের দুই পরিবারকে তারা একসঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেবে এবং সেখানে উপস্থিত থাকবেন তাদের সংস্থার উপদেষ্টারা।

বিয়ের পর চার বছর তারা ওই বিবাহিত দম্পতির ‘সঙ্গে সঙ্গে’ থাকবে। হামদান অ্যাপটি তৈরি করেছে তেবিয়ান কালচারাল ইনস্টিটিউট। তারা বলছে, এই অ্যাপ একটা সুস্থ পারিবারিক মূল্যবোধ তৈরি করবে। তারা বলছে ইরানের শত্রু এবং শয়তানের হুমকির কারণে পরিবারগুলোতে ইসলামিক মূল্যবোধ এখন বিপন্ন।

আরো পড়ুন:
যশোরে এমপি নাবিলের পক্ষে ৫০০ পরিবারকে ত্রাণ দিলেন মিন্টু
যশোরে আলী রেজা রাজু’র আত্মার শান্তি কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

নাগরিক তথ্য নথিভুক্ত করার জাতীয় সংস্থা ন্যাশানাল অর্গানাইজেশান ফর সিভিল রেজিস্ট্রেশনের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০২০ সালের মার্চ এবং ডিসেম্বর মাসের মধ্যে ইরানে তিন লাখ সাত হাজার ৩০০ বিয়ে এবং ৯৯ হাজার ছয়শ বিবাহ বিচ্ছেদ নথিভুক্ত হয়েছে।

জুলাই,১৬.২০২১ at ১০:৫০:৪২ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এমটি/এসআর