২৮ আইপি টিভির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার চিঠি ভুয়া

বিজ্ঞাপন

২৮টি আইপি টেলিভিশনের (টিভি) বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া সংক্রান্ত একটি চিঠি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে চিঠিটি ভুয়া বলে জানিয়েছে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে বুধবার (৪ আগস্ট) বিকেলে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ঢাকা পোস্টকে বলেন, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় থেকে এ ধরনের কোনো চিঠি ইস্যু করা হয়নি, চিঠিটি ভুয়া।
২৮টি আইপি টিভি এবং মালিকের নাম সম্বলিত ভুয়া এই চিঠিতে বলা হয়, এই চ্যানেলগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হলো।

সম্প্রতি নানা অভিযোগে জয়যাত্রা গ্রুপের কর্ণধার হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতারের পর তার মালিকানাধীন আইপি টিভি জয়যাত্রার অফিসও বন্ধ করে দেয় র‍্যাব। বাহিনীটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, হেলেনার আইপি টিভির কোনো বৈধ কাগজপত্র ছিল না।

ইতোমধ্যে টেলিযোগাযোগ আইনে হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে একটি মামলাও করা হয়েছে। র‌্যাব-৪ এর উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইদ্রিস আলী গত শুক্রবার (৩০ জুলাই) রাজধানীর পল্লবী থানায় এই মামলা দায়ের করেন।

অভিযোগ উঠেছে, আইপি টিভি খুলে দেশে-বিদেশে বিপুল সংখ্যক প্রতিনিধি নিয়োগ দিতেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। সাংবাদিক পরিচয়পত্র দেওয়ার নামে প্রত্যেকের কাছ থেকে ২০ হাজার থেকে লাখ টাকা পর্যন্ত চাঁদা নেওয়া হয়েছে।

আরো পড়ুন:
পরী মনির বাসায় র‌্যাবের অভিযান
রূপগঞ্জে লেদার কারখানায় আগুন

এ ঘটনার পর বিভিন্ন অভিযোগ থাকা আইপি টিভির বিষয়ে নানা মহলে আলোচনা চলছে।
সোমবার সচিবালয়ে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে সময় এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, কিছু আইপি টিভির বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ আছে। সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা সময়-সময় ব্যবস্থা গ্রহণ করি।

তিনি আরও বলেন, কিছু কিছু আইপি টিভি ব্যক্তি স্বার্থে পরিচালিত হয়। নানা ধরনের বিভ্রান্তি ছড়ায়। কোনো অভিযোগ নজরে আসলে আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করি। ইতোমধ্যে অনেকগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

আগষ্ট ০৪.২০২১ at ১৮:০৮:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/জআ