পরী মনির বাসায় র‌্যাবের অভিযান

বিজ্ঞাপন

এবার আলোচিত অভিনেত্রী পরি মনির বাসায় অভিযান শুরু করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। বুধবার (৪ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৪টার পর তার বনানীর বাসায় অভিযান চালায় রেবের একটি টিম।

বনানী লেকভিউ ১২ নম্বর সড়কের ১৯/এ সড়কের এই বাসায় র‌্যাবের অভিযান চালালে পরী মনি প্রথমে তাদের বাসায় ঢুকতে বাধা দেন। এরই মধ্যে তিনি ফেসবুক লাইভে এসে বিভিন্ন জনকে ফোন করা শুরু করেন। কোথাও সাড়া না পেয়ে আধঘণ্টা পর দরজা খুলে দেন তিনি। এরপরই র‌্যাব সদস্যরা তার এবং বাসার সবার মোবাইল ফোন নিয়ে নেয়।

লাইভে পরী মনি অভিযোগ করে বলেন, তার বাসায় বিভিন্ন পোশাকে লোকজন এসে ফ্ল্যাটের দরজা খুলতে বলছেন। তারা দরজা ধাক্কা-ধাক্কি করতেছে। কিন্তু তিনি দরজা খুলতে ভয় পাচ্ছি। এজন্য সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক খন্দকার আল মঈন বলেন, সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে চিত্রনায়িকা পরী মনির বাসায় র‍্যাব অভিযান পরিচালনা করছে। অভিযান শেষে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে।

অভিযান চলাকালে বিকেল সাড়ে চারটার দিকে পরী মনি তার বাসার বারান্দায় এসে নিচে দায়িত্ব পালনরত সাংবাদিকদের উপরে ওঠার জন্য ডাকতে থাকেন। এ সময় তিনি ভবনের পাঁচতলার বারান্দায় এসে সাংবাদিকদের বলেন, ভাই আপনারা উপরে কেন আসছেন না, আপনারা উপরে আসেন।

র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখার সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান বলেন, সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে একটি টিম সেখানে গিয়েছে। তারা পরী মনির বাসায় তল্লাশি চালাচ্ছে। তল্লাশিতে এখনও কিছু পাওয়া গেছে কিনা সেটা বলতে পারছিনা। অভিযান ও তল্লাশি চলমান।

বোট ক্লাব কাণ্ডে নতুন করে আলোচনায় আসা বিতর্কিত এই নায়িকাকে ঘিরে অভিযোগের শেষ নেই। তার বাসায় অবৈধভাবে বিপুল পরিমাণ বিদেশী মদ রাখার অভিযোগ রয়েছে। তার বিরুদ্ধে আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পুরনো। একাধিক ফ্লপ ছবির এই নায়িকার বিরুদ্ধে বহু বিবাহের অভিযোগ রয়েছে। ধনীর দুলালদের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে দেশে-বিদেশে ঘুরে বেড়ানো এবং অর্থ আত্মসাতের অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

বনানী ১২ নাম্বার রোডে অবস্থিত পরীমণির বাসার নিচে র‍্যাব-১ এর একটি গাড়ি দাঁড়িয়ে রয়েছে। এছাড়া, পুলিশের বেশ কয়েকটি গাড়িও রয়েছে। পরী মনির বাসার আশপাশে পুলিশ সদস্যরা অবস্থান নিয়েছেন। মূল গেটের সামনে কয়েকজন র‍্যাব সদস্য দাঁড়িয়ে রয়েছে। মূল গেটের ভেতরে র‍্যাবের কয়েকজন নারী সদস্যকেও দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।

পরী মনির বাসার সামনে দায়িত্বরত এক র‍্যাব কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, অভিযানটি মূলত পরিচালনা করছে র‍্যাব সদর দপ্তর, সহযোগিতায় রয়েছেন র‍্যাব-১ এর সদস্যরা।

সম্প্রতি অভিনেত্রী একা এবং মডেল পিয়াসা ও মৌ কে গ্রেপ্তার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তাদের বাসায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমানে মদ ও সিসা পাওয়া যায়।

ref : ভোরের কাগজ