মুম্বাইয়ে আটক বিজেপি নেতা যশোরের বোয়ালিয়া গ্রামের রুবেল!

মুম্বাই পুলিশের হাতে আটক বিজেপি নেতা রুবেল যোনু শেখ। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের যশোর জেলার বোয়ালিয়া গ্রামের বাসিন্দা রুবেল শেখ (২৪)। ২০১১ সালে অবৈধভাবে সীমান্ত পেরিয়ে তিনি ভারতে প্রবেশ করেন। পশ্চিমবঙ্গ হয়ে পরে মুম্বাইয়ে পাড়ি দেন এবং সেখানে বিজেপি দলের সঙ্গে যুক্ত হয়ে দলের কাজকর্ম করতে থাকেন। এক সময় তাকে দলের মাইনিরিটি সেলের উত্তর-পূর্ব জেলার সভাপতির দায়িত্বও দেওয়া হয় বলছেন মুম্বাই পুলিশ।

জানা গেছে, রুবেল যোনু শেখ বিজেপির উত্তর-পূর্ব মুম্বাই অঞ্চলের সংখ্যালঘু সেলের সভাপতির দায়িত্বেও আছেন। অবৈধভাবে ভারতে বসবাস করছেন এবং তিনি বাংলাদেশের নাগরিক অভিযোগে, গত ৩১ জানুয়ারি রুবেলকে গ্রেফতার করা হয়।

আরও পড়ুন:
বাড়ি নির্মাণে মালামাল সাপ্লাইয়ের নামে চাঁদাবাজির দুর্বৃত্তয়ান বন্ধে যশোরের এসপি প্রলয়ের উদ্যোগ
ফুল দেয়ার এক ঘণ্টা আগে অরক্ষিত শহীদ মিনার
স্ত্রীকে ধর্ষণের মামলায় স্বামী গ্রেফতার

ভারতের মুম্বাইয়ের মালাড (ওয়েস্ট) আম্বোজওয়াদি এলাকার বাসা থেকে তাবে আটক করেন মালবানি থানার পুলিশ।

রুবেলের ব্যাপারে সন্দেহ হওয়ায় তার মুম্বাইয়ের মালাডের বাড়িতে গিয়ে অভিযান চালিয়ে পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার মালিপোতা গ্রাম পঞ্চায়েতের পক্ষ ইস্যু করা ‘রেসিডেন্সিয়াল সনদ’ এবং নদীয়া জেলার অন্তর্গত হাঁসখালীর একটি স্কুলের পক্ষ থেকে দেওয়া স্কুলের সনদ’র হদিস পায় পুলিশ। ওই নথি যাচাইয়ের জন্য মুম্বাই পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর ছারুদট কোন্ডের নেতৃত্বে একটি দল পশ্চিমবঙ্গে এসে ওই সব জায়গায় গিয়ে তদন্তও চালায়। এতে দেখা যায় তার সবটাই ভুয়া। এর পরই গত ৩১ জানুয়ারি রুবেলকে গ্রেফতার করা হয়।

এ ব্যাপারে মুম্বাই পুলিশের সিনিয়র ইন্সপেক্টর ভালেরাও শেখর জানান, প্রায় এক দশক ধরে অবৈধভাবে রুবেল ভারতে বসবাস করছিলেন। ভুয়া ভারতীয় নথি তৈরির অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ওই ভুয়া নথি দিয়ে তিনি আধার কার্ড ও প্যান কার্ডও বানিয়েছিলেন। বর্তমানে তাকে বিচার বিভাগীয় হেফাজতে (জুডিশিয়াল কাস্টডি) রাখা হয়েছে।

সূত্র : দ্য ওয়াল।