তাড়াইলে ৪ মণ নিষিদ্ধ জাল জব্দ, পুড়ানো হয়েছে আগুনে

বিজ্ঞাপন

কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে সূতী নদী থেকে চার মণ নিষিদ্ধ জাল জব্দ করে উপজেলা বালুর মাঠে আগুনে পুড়ানো হয়েছে।

জানা যায়, বুধবার (১৩ অক্টোবর) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট লুবনা শারমিন এর নেতৃতে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে সূতী নদীতে অভিযান চালিয়ে ৪ লাখ টাকার নিষিদ্ধ জাল এবং আনজু মিয়া নামে একজন জেলেকে আটক করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা মৎস্য অফিসার অমিত পন্ডিতসহ তাড়াইল থানা পুলিশ।

আরো পড়ুন :
গোমস্তাপুরে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের উচ্চ মূল্য, হিমশিম খাচ্ছেন মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষ
নওগাঁয় শ্রমিকলীগের ৫২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

সূতী নদীর লিজ গ্রহীতা নবদ্বীপ বর্মন জানায়, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার রাউতি ইউনিয়নের মৌগাঁও গ্রামের জেলে বাবুল এবং তাড়াইল-সাচাইল সদর ইউনিয়নের সহিলাটী গ্রামের জেলে আসাব গণি রাতের আঁধারে নিষিদ্ধ জাল দিয়ে অবাধে দেশীয় প্রজাতির বিভিন্ন পোনা মাছ ও মা মাছ ধ্বংস করছে।

বিশ্বস্থ সূত্রে খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লুবনা শারমিন মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে এসমস্ত অবৈধ জাল জব্দ করে নিয়ে যায়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লুবনা শারমিন বলেন, কারেন্ট জাল ব্যাবহার করা আইনত নিষিদ্ধ। এসব নিষিদ্ধ জাল দিয়ে এক ধরনের লোভী মানুষ পোনা মাছ ও মা মাছ ধ্বংস করছে জেনে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে এ অভিযান পরিচালনা করেছি। এরকম অভিযান আগামীতেও অব্যাহত থাকবে।

অক্টোবর ১০.২০২১ at ১৭:২৮:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/শই/রারি