ইলিশ রক্ষা অভিযান: শিবচরে আরো ৫১ জেলেকে কারাদন্ড

বিজ্ঞাপন

সরকার ঘোষিত নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ শিকারের অভিযোগে ৫১ জেলেকে আটক করা হয়েছে। সোমবার রাত ২ টা থেকে মঙ্গলবার দুপুর ১২ টা পর্যন্ত শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়ি, চরজানাজাত, বন্দরখোলা এলাকার পদ্মানদীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের নিকট ৫৫ হাজার ৫ শত মিটার কারেন্ট জাল ও ১০ কেজি মা ইলিশ জব্দ করে ভ্রাম্যমান আদালত।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানের অংশ হিসেবে পদ্মানদীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত ও শিবচর থানা পুলিশের একটি টিম। এসময় পদ্মানদীতে নিষেধ অমান্য করে ইলিশ শিকার করায় ৫৫ জেলেকে নদী থেকে আটক করে পুলিশ।

পরে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তাদের ৫১ জনকে এক বছর করে সাজা প্রদান ও ৪ জনকে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়ায় ৫ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড দেওয়া হয়েছে। এসময় জব্দকৃত ইলিশ ধরার জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয় ও জব্দকৃত মাছ নিকটস্থ এতিম খানায় বিতরন করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন শিবচর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভুমি) এম রাকিবুল হাসান।

আরো পড়ুন :
দ্রব্য মূল্য বাড়লেও বাড়েনি মানুষের দাম
মহামারি ঠেকাতে যুক্তরাজ্যের পদক্ষেপ ‘ইতিহাসের বড় ব্যর্থতা’

তিনি বলেন, যে সকল জেলে সরকারী আদেশ অমান্য করে নদীতে নেমেছেন তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হয়েছে। জেলেদের জেল দেয়া আমাদের উদ্দেশ্য নয়। আমরা চাই সকল জেলে সরকারী আদেশ মেনে নির্ধারিত সময় পর্যন্ত মাছ ধরা থেকে বিরত থাকুক। মা ইলিশ পদ্মায় নির্ভয়ে বিচরন করুক। এ জাতীয় সম্পদ রক্ষায় সবার সহযোগিতা কাম্য।

শিবচর উপজেলা জেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা ফেরদৌস ইবনে রহিম বলেন, আমাদের উদ্দেশ্য জেলেদের ধরা বা জরিমানা করা না। আমাদের উদ্দেশ্য মা ইলিশ সংরক্ষণ করা।তাই সকলকে অনুরোধ করবো তারা যেন মা ইলিশ রক্ষা করেন।

অক্টোবর ১২.২০২১ at ১৭:০৩:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এসএমদেহো/রারি