গাবতলীতে চুরি যাওয়া কৃষকের ৫টি গরু উদ্ধার-৩ জন গ্রেফতার

বিজ্ঞাপন

বগুড়ার গাবতলী মডেল থানা পুলিশ সাড়াসী অভিযান চালিয়ে কৃষকের চুরি যাওয়া ৫টি গরু উদ্ধার করেছে। এঘটনায় পুলিশ কুখ্যাত চোর ঠান্ডুসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরন করেছে। থানাসুত্রে জানাগেছে, গাবতলী উপজেলার কাগইল বেড়েরঘোনপাড়া গ্রামের উইনুছ উদ্দীনের ছেলে সাজেদুর রহমান শামীম থানায় বাদী হয়ে এজাহারে বলেছেন, চলতি মাসের ৫জুন দিবাগত রাত হতে ৬ জুন ভোর রাত ৪ ঘটিকার মধ্য তার এলাকার ৪টিসহ ২জুন রিপন মিয়ার ২টি, ৮জুন আব্দুর রাজ্জাকের ৪টিসহ মোট ১০ টি গরু চুরি হয়েছে।

এঘটনায় থানায় ১৩ জুন ৩৮০/৪৫৭ পেনাল কোড ধানায় ১নং সাজেদুর রহমান শামীম বাদী মামলাটি রেকর্ড করা হয়। বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা বিপিএম (বার) দিকনির্দেশনায় গাবতলী মডেল থানার অফিসার ইনজাচার্জ মোঃ জিয়া লতিফুল ইসলামের নেতেৃত্বে, এক অভিযান পরিচালনা করেন মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ জামিরুল ইসলাম। অভিযানে এস আই সুব্রত কুমার মাহাতো, ইফতেখায়রুল ইসলাম, আব্দুল কুদ্দুস, এএসআই কাজেম আলী, আমিনুল হক, রেজেক আলী, জাহাঙ্গীর আলম, রফিকুল ইসলামসহ বিভিন্ন ফোর্স একাধিন টিম বিভিন্ন জায়গায় ১৩ জুন রাতভর অভিযান চালিয়ে ২ লাখ টাকা মুল্যে কৃষকের ৫টি গরু উদ্ধার করে।

গরু চুরির সাথে জড়িত গাবতলী উপজেলার কাগইল ইউনিয়নের কৈঢোপ গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে কুখ্যাত গরুচোর ঠান্ডা মিয়া ওরফে ঠান্ডু (৫২), একই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে মহিদুল ইসলাম (২৫), শিবগঞ্জ উপজেলার চল্লিশছত্র (ঘোনপাড়া) গ্রামের পিতামৃত হাসেন আলী ছেলে রুবেল (৪৫)কে গ্রেফতার করে। এব্যপারে যোগাযোগ করা হলে গাবতলী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ জিয়া লতিফুল ইসলাম সাথে তিনি জানান, ধৃত আসামীরা গরুচুরির সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। তাদের দেখামতে চোরাই ১০মধ্য ৫টি গরু উদ্ধার করা হয়েছে।

আরো পড়ুন:
কালীগঞ্জে লেদ মিস্ত্রী হত্যা কান্ডের প্রধান আসামি বাবু ঠাকুরগাঁও থেকে আটক

অভিযান অব্যাহ থাকবে, আসামীদেরকে ১৪জুন আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। চুরি হওয়া গরু দ্রুত উদ্ধার হওয়ায় থানা চত্বরে গ্রামের সাধারন কৃষক গরুর মালিকগন পুলিশ সুপারসহ গাবতলী মডেল থানার ওসিসহ সকল পুলিশের ভুয়সী প্রশংসা করেছে।