ফলের আড়ালে মাদক ব্যবসা, এক ব্যক্তির কারাদণ্ড

ফলের আড়ালে মাদক ব্যবসার অভিযোগে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান।

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ফল ব্যবসার আড়ালে দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছিলেন মকসেদ আলী (৪৫) নামে এক ব্যক্তি। এ ঘটনার খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত সেখানে অভিযান পরিচালনা করে মাদক ব্যবসা ও সেবনের দায়ে মকসেদ আলীকে আটক করে ৪ মাস কারাদণ্ড দিয়েছেন। সোমবার (২১ ডিসেম্বর) বিকেলে দৌলতপুর উপজেলার হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের জয়রামপুর বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এই অভিযান চালানো হয়।

জানা যায়, গোপন সূত্রের খবরের ভিত্তিতে বিকেল ৫টার দিকে সহকারী কমিশনার (ভূমি), নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আজগর আলীর নেতৃত্বে উপজেলার জয়রামপুর বাজারে মকসেদ আলীর ফলের দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালানো হয়। এ সময় ১৮ পিস ইয়াবা ও এক পিস ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ মকসেদ আলীকে আটক করা হয়। পরে তাকে ৪ মাসের কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আজগর আলী। দণ্ডপ্রাপ্ত মাদক ব্যবসায়ী মকসেদ আলী জয়রামপুর এলাকার লেদু মোল্লার ছেলে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি), নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আজগর আলী জানান, মকসেদ আলী দীর্ঘদিন ধরে লোক দেখানো ফল ব্যবসার আড়ালে মাদকের ব্যবসা চালিয়ে আসছিলেন। এ ছাড়া তিনি নিজেও নিয়মিত মাদক সেবনকারী। গোপন সূত্রের মাধ্যমে খবর পেয়ে সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ১৮ পিস ইয়াবা ও এক পিস ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ মকসেদ আলীকে আটক করা হয়। পরে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮ এর ৯(১)(গ)/৩৬(১) সারণি ১৬ ধারা মোতাবেক তাকে চার মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।

এদিকে দণ্ডপ্রাপ্ত মাদক ব্যবসায়ী মকসেদ আলীকে তাৎক্ষণিক দৌলতপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। তিনি বর্তমানে থানা হেফাজতে রয়েছেন। মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) সকালে তাকে কুষ্টিয়া জেলা কারাগারে পাঠিয়ে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন এ থানার ওসি (তদন্ত) শাহাদাৎ হোসেন।