বাঘারপাড়ায় জমি কিনে বিপাকে দুই গৃহবধূ

জমি কিনে বিপাকে পড়েছেন যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার দুই গৃহবধূ। জমি ঠেকাতে মামলা করে জমির উপর ১৪৪ ধারা জারি হলেও আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জমি দখলে নিয়েছেন দুর্বৃত্তরা। শুধু তাই নয়, ৫ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে তারা ভুক্তভোগীর বাড়িতে সদলবলে প্রতিনিয়ত হানা দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার বাসুয়াড়ী ইউনিয়নের আলাদীপুর গ্রামের সৌদি প্রবাসী জাহাঙ্গীরের স্ত্রী ২ সন্তানের রজনী লায়লা বেগম ও আব্দুল্লাহ্র স্ত্রী নুরুন্নাহার বেগম একই ইউনিয়নের নিত্যানন্দপুর গ্রামের আকবার আলীর কাছ থেকে মোট ২৭.১৯ শতক জমি কিনে ভোগ দখল করতে থাকেন।

আরো পড়ুন :

> খন্দকার মুশতাককে তালাক দিলেন আইডিয়ালের সেই ছাত্রী
> ভোজ্যতেলের দাম কমার আভাস বাণিজ্যমন্ত্রীর

এদিকে, গতবছরের ১৫ নভেম্বর জমি বিক্রেতার ভাই নবীর হোসেন জমি ফিরে পাওয়ার আশায় সংশ্লিষ্ট কার্যালয়ে আমানত করেন এবং ১ ডিসেম্বর বিবাদীপক্ষ দেশীয় অস্ত্রসহ ওই জমি দখলের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। এ ব্যাপারে ওই দিনই বাদীপক্ষ বিজ্ঞ অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট আদালত যশোরে মামলা করেন। বিজ্ঞ আদালত জমির উপর ১৪৪ ধারা জারি এবং বিষয়টির প্রতি নজর দেয়ার জন্য বাঘারপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জকে নির্দেশ দেন।

তারা অভিযোগে আরও বলেন, নবীর হোসেন আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে তার সহযোগীদের হস্তক্ষেপে জোরপূর্বক ওই জমি ইতিমধ্যেই দখলে নিয়েছে। এমনকি বাদীপক্ষের কাছে তারা ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবিসহ প্রতিনিয়ত খুন-জখমের হুমকি অব্যাহত রেখেছেন বলে বাদীপক্ষ দাবি করেছে।

এদিকে জমি বিক্রেতা আকবর আলী বিশ্বাস জানান, ওই সময়ে তার নিকটাত্মীয়রা জমি কিনতে অপারগতা প্রকাশ করায় টাকার বিশেষ প্রয়োজনে তিনি জমি অন্যত্র বিক্রি করেন। এ বিষয়ে অভিযুক্ত নবীর হোসেনের বক্তব্যের জন্য তার বাড়িতে গিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।

জুন ১৩, ২০২৩ at ২১:৫৯:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/দেপ্র/ইর