পাবনায় প্রকাশ্যে অস্ত্রে মহড়া, অস্ত্রধারীকে গ্রেফতারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন ও বিক্ষোভ

পাবনা সদর উপজেলার হিমায়েতপুরে প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে মহড়া দিয়ে হত্যার হুমকির অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় গ্রামবাসীদের মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

এছাড়াও গ্রামবাসীকে মারধর, বাড়িঘর ও দোকানে ভাঙ্চুর এবং লুটপাটের অভিযোগও উঠেছে। অস্ত্রধারীকে দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন ও বিক্ষোভ করেছেন স্থানীয়রা।

রবিবার (১১ জুন) দুপুরে হিমায়েতপুরের চর বাঙ্গাবাড়িয়ার পশ্চিম পাড়ায় এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন স্থানীয় জনসাধারণ।  সংবাদ সম্মেলনের পর কয়েকশ গ্রামবাসী নিরাপত্তার দাবিতে বিক্ষোভ করেন।

আরো পড়ুন :

> সুস্থ হলে সাজা ভোগ করতে হবে খালেদাকে
> বাংলাদেশকে আর পেছনে টেনে নিতে পারবে না কেউ

লিখিত অভিযোগে স্থানীয়রা জানান, গত ৯ মে পাবনার চর বাঙ্গাবাড়িয়ার গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনিছ সরদার ও তার বাহিনী নিজেদের মধ্যে গোলাগুলি করে কিছু লোক আহত করেন। কিন্তু পূর্ব শত্রুতা ও প্রতিহিংসার জরে ধরে স্থানীয় নিরিহ মানুষদের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। শুধু মামলা নয় আনিস সরদারের বাহিনীর অন্যতম ইছাক প্রামাণিক প্রকাশ্যে অস্ত্র দিয়ে মহড়া দেয় এবং হত্যার হুমকি দেন।  এলাকার দুটি মুদিখানার দোকানে হামলা ও লুটপাট করে। বেশ কয়েকজনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

তারা আরও অভিযোগ করেন, আনিস ও অস্ত্রধারী ইছাক এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করে স্থানীয়দের মাঠে ও বাজারে যেতে বাধা দিচ্ছেন। এমনকি শিক্ষার্থীদেরও স্কুলে যেতে দিচ্ছেন না। পথেঘাটে নারীদের উক্তত করছেন। এসব ঘটনায় গ্রামবাসীর মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

সংবাদ সম্মেলনে স্থানীয়দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাবুূল হোসেন, কালু মৃধা, সুরুজ মণ্ডল, আবুল হোসেন, আব্দুল মান্নান মৃধা, আলিম মৃধা, রাণী খাতুন, আখি আক্তার, রোজিনা খাতুন, সালেহা খাতুন, মাসুরা খাতুন।

এবিষয়ে অভিযুক্তদের সঙ্গ যোগাযোগ করেও বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে প্রকাশ্যে অস্ত্র প্রদর্শনকালীদের গ্রেফতার করার জন্য অভিযানের কথা জানালেন পাবনার পুলিশ সুপার আকবর আলী মুন্সী। তিনি বলেন, অস্ত্র নিয়ে মহড়ার ভিডিও আমাদের কাছেও আছে। এবিষয়ে ইতোমধ্যে ডিবি পুলিশ কাজ করছে। অভিযুক্তদের বিরুদে দ্রুত আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জুন ১১, ২০২৩ at ১৬:০৪:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/মির/ইর