মদনে প্রধান মন্ত্রীর উপহারের ট্যাব বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ

শোরের কেশবপুর উপজেলার বুড়িহাটী গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পাল্টা পাল্টি অভিযোগ।

নেত্রকোনার মদনে এক প্রতিষ্ঠান সহকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ট্যাব বিতরণে অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ করেছেন এক অভিভাবক। বিষয়টি জানতে চাইলে ওই শিক্ষক অভিভাবককে গালমন্দ, অশ্লীল বাক্য ব্যবহার করেছেন বলেও অভিযোগে উল্লেখ করেছেন। এ নিয়ে ভুক্তভোগী ন্যায় বিচার চেয়ে নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, জনশুমারি ও গৃহগণনা প্রকল্প থেকে প্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রীর উপহার স্বরূপ মদন উপজেলায় ১৬টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মোট ৪৮ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে ট্যাব বিতরণ করা হয়। ট্যাব বিতরণের আগে বিদ্যালয়গুলোর প্রধান শিক্ষকের কাছে নবম ও দশম শ্রেণির মেধা তালিকার প্রথম তিনজন (রোল ১, ২, ৩) করে মোট ৬ জন শিক্ষার্থীর তালিকা চাওয়া হয়।

আরো পড়ুন :
>> গাজীপুরে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার
>> বীরগঞ্জে দাবদাহ থেকে মুক্তি ও বৃষ্টির জন্য বিশেষ নামাজ আদায়

অন্যান্য বিদ্যালয়ের মতো উপজেলার মাঘান উচ্চ বিদ্যালয় থেকেও তালিকা দেওয়া হয়। কিন্তু সেই তালিকায় নবম শ্রেণির ৩ রোলের মুক্তামনির পরিবর্তে ট্যাব দেওয়া হয় বিদ্যালয়ের এক ম্যানেজিং কমিটির সদস্যের মেয়ে ফারজানা আক্তারকে। যার রোল একই শ্রেণিতে ২১। বিষয়টি জানতে দায়িত্বরত সহকারী শিক্ষক কামাল উদ্দিনের কাছে যান মুক্তামনির মা মর্জিনা আক্তার। এ সময় সহকারী শিক্ষক কামাল উদ্দিন শিক্ষার্থীর মাকে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করে বিদ্যালয় থেকে বের হতে বলেন। নিরুপায় হয়ে এ অভিযোগটি দায়ের করে ন্যায় বিচার চান এ অভিভাবক।

বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম খোকন জানান, বিষয়টি নিষ্পত্তি হয়েছে। তবে অভিভাবকে একজন শিক্ষক অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করবেন এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, উনার সাথে কথা কাটাকাটি হয়েছে গালমন্দ করেনি।মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শফিকুল বারী জানান, ট্যাব বিতরণ নিয়ে মাঘান উচ্চ বিদ্যালয়ে অনিয়মের অভিযোগ হয়েছিল বিষয়টি সমাধান করেছি।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: শাহ আলম মিয়া জানান, আগামীকাল রোববার অফিস খোলা বিষয়টি নিয়ে শিক্ষা কর্মকর্তা ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকে নিয়ে বসব।

জুন ১০, ২০২৩ at ১৬:০৫:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/আআও/শাস