পৌরসভা নির্বাচন: বেনাপোলে নাসিরসহ ৯ পৌরসভায় আ. লীগের মনোনয়ন ঘোষণা

যশোরের বেনাপোল পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট সিএন্ডএফ ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন। শুক্রবার গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার ও সংসদীয় বোর্ডের যৌথ সভায় এ মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হয়। দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এই সভা হয়।

সভায় বেনাপোলসহ দেশের ৯টি পৌরসভার মেয়র পদে ও ৩৭টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদেও দলীয় প্রার্থীদের মনোনয়ন দেওয়া হয়। এসভায় ঢাকা-১৭ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে মোহাম্মদ এ আরাফাতকে।

বেনাপোল পৌরসভায় মনোনয়ন পেয়েছেন বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট সিএন্ডএফ ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন। এদিকে মনিরামপুরের হরিহরনগরে ইউনিয়ন পরিষদে মনোনয়ন পেয়েছেন মাস্টার জহুরুল ইসলাম।

বেনাপোল পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন ৬ নেতা। এরমধ্যে নাসিরকে নৌকার মাঝি করা হয়েছে।

বেনাপোল পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার মাঝি নাসির উদ্দিন
প্রসঙ্গত আগামী ১৭ জুলাই পৌরসভা, ইউনিয়ন পরিষদ ও ঢাকা-১৭ আসনে উপনির্বাচন হবে। এ নিয়ে গণভবনে মিটিং ছিল শুক্রবার রাতে। মিটিং শেষে দলের প্রার্থী চূড়ান্ত’র বিষয়টি নিশ্চিত করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য ওবায়দুল কাদের।

এদিকে, ঢাকা-১৭ আসনে উপনির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে ২২ জন দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছিলেন। তাঁদের মধ্যে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাদের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় নেতা, ব্যবসায়ী, চিত্রনায়কও ছিলেন।

২০০৮ সালে ঢাকা-১৭ আসনে প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন সাবেক সামরিক শাসক ও জাতীয় পার্টির প্রয়াত চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। মহাজোটের স্বার্থে তাঁকে আসনটি ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় আওয়ামী লীগ। এরশাদ তখন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন বিএনপির নেতা ও আরেক সাবেক সেনা কর্মকর্তা প্রয়াত হান্নান শাহকে হারিয়ে।

২০১৪ সালে বিএনপির বর্জনের মধ্যে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে এরশাদ পুনরায় এই আসন থেকে মনোনয়ন চান। তবে শেষ মুহূর্তে আওয়ামী লীগের সঙ্গে থাকা না–থাকা নিয়ে নাটকীয়তার মধ্যে তাঁর প্রার্থিতা বাতিল হয়। বিএনএফ নামের একটি অপরিচিত দলের প্রধান আবুল কালাম আজাদ তখন নির্বাচিত হন। সে সময় ক্ষমতাসীনদের সমর্থন পেয়েছিলেন তিনি।

সর্বশেষ নির্বাচনে প্রয়াত চিত্রনায়ক ফারুক আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে জয়ী হন।