যশোরে রড মিস্ত্রিকে ছুরিকাঘাতের এক সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে মায়ের মামলা

ছবি- সংগৃহীত।

যশোর সদর উপজেলার ভেকুটিয়া বাজারে কথা কাটাকাটির জের ধরে মনিরুল ইসলাম (৩০) নামে এক রড মিস্ত্রিকে ধারালো চাকু দিয়ে আঘাত করে গুরুত্বর রক্তাত্ত জখম ও খুন জখমের ভয়ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগে কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে।

আহত মনিরুলের মা বড় ভেকুটিয়া বাজারের শহিদুল ইসলামের স্ত্রী মোছাঃ রেখা বেগম (৪৫) বৃহস্পতিবার ৮ জুন সকালে রুবেল হোসেনকে আসামি করে মামলা করেন। রুবেল বালিয়া ভেকুটিয়া গ্রামের আমান উল্লাহ আমানের ছেলে।

আরো পড়ুন :

> ধু-ধু বালুচরে বাড়ছে আবাদি জমি, কমছে গো-চারণভূমি
> সিলেটে ১৪ শ্রমিকের মৃত্যু : সড়কপথ সুরক্ষা কত দূর?

 

 

মামলায় রেখা বেগম বলেন, নাতিকে স্কুলে পৌছে দিতে মনিরুল বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। স্কুলে থেকে ফিরে এসে ভেকুটিয়া বাজারে জনৈক নাসিরের চায়ের দোকানে আসামি রুবেলের সাথে মনিরুলের দেখা হয়। আসামি রুবেল, মনিরুলের পূর্ব পরিচিত হওয়ায় সেখানে দুজনে চা খায়। চা খাওয়ার এক পর্যায়ে তর্কবিতর্ক হয়।

এ সময় আসামি রুবেলের কাছে থাকা চাকু দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে মনিরুলের বুক পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় স্টেপ করে গুরুত্বর রক্তাত্ত জখম করে। মনিরুল পড়ে গেলে আসামি রুবেল খুন জখমের হুমকি দিয়ে দ্রæত স্থান ত্যাগ করে। মনিরুলের চিৎকারে স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। মনিরুলকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা রেফার্ড করা হয়।

পরে এ ঘটনায় তার পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতয়ালি থানার দারোগা এস আই ইয়াসিফ আকবর জয় জানান, আসামি এখনো আটক হয়নি। আটকের অভিযান চলছে। যে কোন মুহুর্তে গ্রেফতার হবে।

জুন ০৯, ২০২৩ at ১২:০২:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/দেপ্র/ইর