কালীগঞ্জে সরকারী জমি দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করার অভিযোগ

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজারের সরকারী জমি দখল করে দীর্ঘদিন যাবত একটি গ্রæপ দোকান ঘর নির্মাণ করে নিয়মিত ভাড়া আদায় করে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনের ভূমিকায় স্থানীয়রা হতবাক। এলাকাবাসী দ্রুত অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদের দাবি জানিয়েছেন।

অভিযোগ মতে, বারোবাজার গরু হাটের নিকট মেইন সড়কের ধারে সরকারী একটি রড় পুকুর রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে একটি চক্র পুকুর পাড়ে দোকান ঘর নির্মান করে ভাড়া আদায় করে নিজেরা খাচ্ছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে এই সকল অবৈধ দখলদারেরা সরকারের নিকট থেকে ডিসি আর বা কোনা বন্দোবস্ত না নিয়েই নিজেরা রাজনৈতিক প্রভাব খাঁটিয়ে দখল করেছে। সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে বেলাট গ্রামের নিজাম উদ্দিন, নুর মোহাম্মদ, চকলেট মিয়া, তপন, শ্যামল, পিন্টু, সাহাবুর, আনসার আলী, স্বপন মিয়া, মনোজ কুমার, মোবাস্বের আলী এই জমি দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করে দিয়ে নিয়মিত মাসিক ভাড়া আদায় করছে।

আরো পড়ুন :
> কাজিপুরে টিসিবির পণ্য জিম্মি করে হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়
> সাভারে মাদক ব্যবসায়ী আটক

অলিয়ার রহমান নামের একজন ভাড়াটি জানান, সরকারী জায়গা হলেও নিজাম উদ্দিন প্রতিমাসে তার নিকট থেকে ঘরভাড়া আদায় করেন। তপন কুমার নামের অপর ব্যবসায়ী জানান, চকলেট মিয়া তার নিকট থেকে ঘরভাড়ার টাকা নিয়ে থাকে।

ঝিনাইদাহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ জানান, এ বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই। তবে বিষয়টি আমি খোঁজ নিবো এবং অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে আইগত ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

বারোবাজারের ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ জানান,সরকারী জমিটি দখল করে রেখেছে এমন অভিযোগ মৌখিকভাবে আমি জেনেছি। আমার জানা মতে, উক্ত জমি কেউ ডিসি আর গ্রহন করিনি।

বারোবাজারের ভূমি কর্মকর্তা রবীন্দ্রনাথ খাঁ জানান, এ বিষয়ে আমার কিছুই জানা নেই। তবে আমি আপনাদের মাধ্যমে জানতে পেরেছি খোঁজ খবর নিয়ে দখলদারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবো। অবৈধ দখলকারী মোবাশ্বের আলী বলেন,বাপ দাদার আমল থেকেই একই ভাবে ভোগ দখলের কথাটি তিনি শিকার করে নেন।

জুন ০৮, ২০২৩ at ১৯:৪০:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/বেহুবি/ইর