দেশি-বিদেশি যতই চাপ আসুক, মাথা নত করবো না

দেশি-বিদেশি কোন চাপের কাছে মাথা নত না করার দৃঢ় প্রত্যয়ের কথা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, এই দেশ আমাদের। আমরা স্বাধীন করেছি। দেশি-বিদেশি যতই চাপ আসুক না কেন, আমরা কোন চাপের কাছেই মাথা নত করবো না। বাঙালি কোনো চাপের কাছে মাথা নত করে না, করবে না। আমাদের দেশের মানুষের ভোটের অধিকার আমরাই সুরক্ষা করবো।

বুধবার (৭ জুন) বিকেলে ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন, সংসদ উপনেতা মতিয়া চৌধুরী ও শাজাহান খান, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আলোচনা সভায় সঞ্চালনা করেন দলটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ ও উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক একেএম আব্দুল আউয়াল শামীম।

আরো পড়ুন :
> পাবনা পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৬দফা দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
> কাজিপুরে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ -২০২৩ কার্যক্রম শুরু

আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই বিদ্যুৎ পরিস্থিতির স্বাভাবিকভাবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগামী দুই এক দিনের মধ্যে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ যোগ হবে। ১৪-১৫ দিনের মধ্যে আরো বিদ্যুৎ আসবে। আশা রাখি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।

তিনি আরো বলেন, এটা কখনো ভাবা যায় বাংলাদেশে তাপমাত্রা ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটা কখনোই আমরা ভাবতে পারিনি। একটা অস্বাভাবিক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। একদিকে লোডশেডিং, অপরদিকে তাপমাত্রা। মানুষের কিছুটা কষ্ট হচ্ছে। আমরা সেটা উপলব্ধি করতে পারছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা বাজেট দিয়েছি। এই বাজেট নিয়ে অনেকেই অনেক কথা বলছেন। কিন্তু বাস্তবায়ন করতে পারব বলেই আমরা সেই বাজেট দিয়েছি। হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কিছু মানুষ আমাদের দেশে আছেন তারা সুযোগের অপেক্ষায় বসে থাকেন। হঠাৎ করে পেঁয়াজ মজুদ করে তারা পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। আমরা যখন আমদানি করার সুযোগ করে দিলাম, তখন দাম কমে গেল। তারা সুযোগের অপেক্ষায় থাকে। আমরাও জানি কখন কি করতে হয়।

মানুষকে পুড়িয়ে মারলে বিএনপি আমেরিকার ভিসা পাবে না মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারা আন্দোলন করবে আর আমাদেরকে উৎখাত করবে- এই স্বপ্ন তারা দেখে। একদিক দিয়ে ভালো হয়েছে। বিএনপি এখন মানুষকে পুড়িয়ে মারলে বা অগ্নি সন্ত্রাস করলে তারাই আমেরিকার ভিসা পাবে না। সেটা একদিক দিয়েই ভালো হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি আন্দোলন করলে করুক। আমি তো বলেই দিয়েছি। তাদের আন্দোলন করতে কোন বাধা নেই। কিন্তু তাদের দিকে নজরও রাখতে হবে। চোখকান খোলা রাখতে হবে। যেন ২০১৩-১৪ ও ১৫ সালের মতো কিছু করতে না পারে।

জুন ০৭, ২০২৩ at ২১:৪৫:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/দেপ্র/ইর