খুলনায় বিনামূল্যে জনসাধারণের সেবা দেবে মুক্তা অ্যাম্বুলেন্স

ছবি: সংগৃহীত

সময়মত হাসপাতালে না নেওয়া হলে একজন সংকটাপন্ন রোগীর জীবন বিপন্ন হতে পারে। কিন্তু এলাকার গরিব-অসহায় মানুষরা যেখানে চিকিৎসা ব্যয় বহন করতেই হিমশিম খায়, সেখানে তাদের পক্ষে একটি অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করে রোগীকে হাসপাতালে নেওয়া কঠিন হয়ে যায়। জরুরি অবস্থায় ভ্যান বা অন্য কোনো বাহনযোগে রোগীর যাতায়াতেও ঝুঁকি থেকে যায়।

এসব গরিব ও অসহায় রোগীদের বিনামূল্যে অ্যাম্বুলেন্স সেবা দিতে খুলনা সিটি করপোরেশনের ৩১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আরিফ হোসেন মিঠুর নিজস্ব অর্থায়নে ওয়ার্ডবাসীর জন্য ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের উদ্বোধন করা হয়েছে। যার নামকরণ করা হয়েছে ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিঠুর বাবা ও সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন মুক্তার নামে, মুক্তা অ্যাম্বুলেন্স।

আরো পড়ুন:
> ক্ষেতলালে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা 
> রাজশাহী দুর্গাপুরে অবৈধভাবে পুকুর খননের চেষ্টা, এস্কেভেটরে আগুন দিলো এলাকাবাসী

বুধবার (৪ জানুয়ারি) রাতে ৩১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কার্যালয়ে কাউন্সিলর মিঠুর সভাপতিত্বে অ্যাম্বুলেন্সের ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন- কাউন্সিলর মিঠুর মা আসিয়া বেগম, অ্যাডভোকেট আইউব আলী, মুহা. মুস্তফা কামাল, শেখ মো. ফারুক হোসেন, শামীমুর রহমান শামীম, হাফেজ মাওলানা সেলিম রেজা, মাওলানা শাফায়েতুল ইসলাম, ওবায়দুল হক তালুকদারসহ আরও অনেকে। উল্লেখ্য, এলাকার উন্নয়নের পাশাপাশি এই ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসটি কাউন্সিলর মিঠুর মহতী উদ্যোগের মধ্যে অন্যতম।

অ্যাম্বুলেন্সের সঙ্গে জরুরি সেবার জন্য রয়েছে ফ্রি অক্সিজেন, নেবুলাইজারেশন। কাউন্সিলর মিঠু বলেন, আমি কাউন্সিলর থাকি আর না থাকি, এ সার্ভিসটি সবসময় থাকবে। এটি আমার বাবার নামে ছাদকায়ে জারিয়া হিসেবে জনসাধারণের মাঝে উন্মুক্ত করা হলো। যার সার্বিক তত্ত্বাবধানে থাকবো আমি নিজেই। ২৪ ঘণ্টা জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে এই সেবা। আমার ব্যবহৃত ০১৭১০-৯০১৩৭২ মোবাইল নাম্বারে কল করে এই সার্ভিস সবাই নিতে পারবেন। এছাড়াও অচিরেই এরকম আরও কিছু সেবামূলক সার্ভিস এলাকাবাসীর জন্য করার আশা আছে।

জানুয়ারি ০৫, ২০২৩ at ১৮:১৭:০০(GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/দেপ/ইমস