পেলেকে শেষ শ্রদ্ধা জানাচ্ছে ভক্তরা

ছবি- সংগৃহীত।

মারা যাওয়ার পাঁচ দিন পর গতকাল শুরু হয়েছে ফুটবল কিংবদন্তি পেলেকে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়। গতকাল ব্রাজিলের সবচেয়ে জনবহুল শহর সাওপাওলোর সান্তোস ক্লাবের ভিলা বেলমারিও স্টেডিয়ামে সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় তাকে সম্মান জানানো। তার ছেলে এডিনহো প্লাস্টিকে মোড়া কভারে বাবার মাথায় হাত রেখে শ্রদ্ধা জানান। এডিনহোই কাঁধে করে নিয়ে আসেন মরদেহ।

এরপর একে একে অন্য ফুটবল ভক্ত তথা ব্রাজিলিয়ানরা শ্রদ্ধা জানান। ২৯ ডিসেম্বর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ব্রাজিলকে তিনবার বিশ্বকাপ জেতানো এই গ্রেট ফুটবলার। দীর্ঘদিন কোলন ক্যান্সারে ভুগছিলেন তিনি। যেখান থেকে পেলের কিংবদন্তি হয়ে ওঠা সেই সান্তোসের মাঠে শেষবারের মতো নিয়ে আসা হয়েছে ফুটবল সম্রাট পেলেকে। তাকে বিদায় জানাতে গিয়ে আবেগে ভাসছে ব্রাজিলের মানুষ। শেষবারের মতো শ্রদ্ধা জানাতে লাখো মানুষের ভীড় জমেছে সান্তোসের স্টেডিয়ামে।

সোমবার সান্তোস ক্লাবের ভিলা বেলমারিও স্টেডিয়ামে সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় তাকে সম্মান জানানো। মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) সকালে ২৪ ঘণ্টা শ্রদ্ধা জানানো শেষে এখান থেকেই শুরু হবে পেলের শেষযাত্রা। তার চাওয়া অনুযায়ী আজ স্টেডিয়ামের পাশেই নেকরোপল একিউমেনিকাতে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন পেলে।

আরো পড়ুনন :
>>সাড়ে ৫ ঘণ্টা পর তিন নৌরুটে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক
>>শীতে রোগমুক্ত থাকতে কী খাবেন? 

সান্তোসের মাঠ ভিলা বেলমিরো স্টেডিয়াম মাঠের মাঝখানে ছেলে এডিনহোর নেতৃত্বে আত্মীয়স্বজন পেলের কফিন নিয়ে যান। এরপরই সারিবদ্ধভাবে ফুটবলের রাজাকে শেষ বিদায় জানানো শুরু করেন হাজারো ব্রাজিলিয়ান।

দীর্ঘদিন কোলন ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে গত বৃহস্পতিবার মৃত্যুবরণ করেন ৮১ বছর বয়সী পেলে। তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে ১২ বছর বয়সী ছেলেকে নিয়ে ৫০০ কিলোমিটার ভ্রমণ করে রিও থেকে সান্তোস এসেছেন কার্লোস মোতা। ৫৯ বছর বয়সী এ ব্রাজিলিয়ান বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, আমার পুরো ছেলেবেলা পেলেময়। তখন তিনি ব্রাজিলকে তিনটি বিশ্বকাপ এনে দিয়েছেন। তিনি ব্রাজিলের প্রতীক!

জানুয়ারি ০৩.২০২৩ at ১১:১৫:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এসএমডি/এসআর