৫ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে সাহিত্য আসর ঢাকা লিট ফেস্ট

ছবি- সংগৃহীত।

৫-৮ জানুয়ারি ঢাকার বাংলা একাডেমিতে শুরু হচ্ছে সাহিত্যের অন্যতম আন্তর্জাতিক আসর ঢাকা লিট ফেস্ট (ডিএলএফ)। বিশ্ব অঙ্গনে বাংলাদেশের সাহিত্য ও সংস্কৃতিকে তুলে ধরার উদ্দেশ্যে আয়োজনটির শুরু ২০১১ সালে, যার নেপথ্যে তিন পরিচালক হিসেবে রয়েছেন কাজী আনিস আহমেদ, আহসান আকবার ও সাদাফ সায। সাহিত্যপ্রধান এ উৎসবের আয়োজন সম্পর্কে বণিক বার্তার সঙ্গে কথা বলেন তারা। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন রুহিনা ফেরদৌস

দশম আসরের জন্য আমরা বড় পরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হচ্ছিলাম, কিন্তু মহামারী চলে আসে। তবে আমরা সবাই এতদিন পৃথকভাবে ছিলাম, এবার আমরা একত্র থাকব এবং বিভিন্ন বিষয়, চিন্তা, ধারণা নিয়ে আলাপ করব। পরস্পরের কথা শুনব। চিন্তাগুলোকে ভাগাভাগি করে নেব। আমি মনে করি, ডিএলএফ হচ্ছে ‘ফেস্টিভ্যাল অব আইডিয়াস’। এখানে আমাদের আলাপগুলো শুধু সাহিত্যকেন্দ্রিক নয়, পাশাপাশি গল্প বলা (স্টোরি টেলিং), একে অন্যের কথাগুলো শোনা, সম্পর্ক-সংযোগ-যোগাযোগ স্থাপন—সব মিলিয়ে পারস্পরিক অনুভূতিগুলোকে ভাগাভাগি করে নেয়া। সবাই যে বিষয়গুলো নিয়ে ভাবছি, পারস্পরিক যোগাযোগ স্থাপনের মাধ্যমে তার সঙ্গে সংযোগ ও সমন্বয় প্রতিষ্ঠা করা। আমরা কোন দিকে অগ্রসর হব সে বিষয়ে দিকনির্দেশনা তৈরি করা।

এ বছর লিট ফেস্টে অংশ নেবেন নোবেল বিজয়ী আব্দুল রাজাক গুরনাহ’র মতো বিখ্যাত ব্যক্তিরা। এছাড়া নুরুদ্দিন ফারাহ, অমিতাভ ঘোষ, হানিফ কুরেশী, পঙ্কজ মিশ্র, টিলডা সুইন্টন, জন লি এন্ডারসন, অঞ্জলি রউফ, সারাহ চার্চওয়েল, গীতাঞ্জলি শ্রী ডেইজি রকওয়েল, গ্রন্থার ফ্রয়েড, অ্যালেকজান্দ্রা প্রিঙ্গেল, ডাইম সারাহ গিশ্বার্ট, মারিনা মাহাথির, জয় গোস্বামী, কামাল চৌধুরী, মুহাম্মদ জাফর ইকবাল, আনিসুল হক, মাশরুর আরেফিন, মারিনা তাবাসসুম, সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, ইমদাদুল হক মিলন, কায়সার হক, শাহীন আখতার, অমিতাভ রেজা এবং আজমেরী হক বাঁধনসহ আরও অনেকে অংশ নেবেন। চার দিনের এই উৎসবে ১৭৫টির বেশি সেশনে অংশ নিচ্ছেন পাঁচটি মহাদেশের পাঁচশর বেশি বক্তা, শিল্পী ও চিন্তাবিদ।

আরো পড়ুন:
>পরীমণির বিছানা-বালিশে রক্ত, করবেন সংবাদ সম্মেলন
>বদলগাছীতে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ উৎসব ২০২৩ পালিত

লিট ফেস্টের আরেক সহ-পরিচালক ড. কাজী আনিস আহমেদ বলেন, আমরা লিট ফেস্টকে দেখি একটি ফেস্টিভ্যাল অব আইডিয়া হিসেবে। যদিও এখানে সাহিত্য একটি মুখ্য বিষয়। এবারের আয়োজনে আমরা চলচ্চিত্র নিয়েও আলাপ করব।

অপর সহ-পরিচালক আহসান আকবার বলেন, মহামারির কারণে আমাদের আয়োজন তিন বছর হয়নি। মহামারির কথা মাথায় রেখে আমরা সারাহ গিলবার্টকে নিয়ে আসছি। এবার আমরা স্বাস্থ্য নিয়ে অনেকগুলো আলোচনা রাখছি। আগামী দিনে মহামারি যেন না আসে সেজন্য আমরা কীভাবে প্রস্তুতি নিতে পারি, আমাদের আরেকটা ভ্যাকসিন যেন না লাগে, সুস্থ থাকতে কি খাওয়া উচিত সেজন্য চিকিৎসক, শেফদের আমরা এই আয়োজনে যুক্ত করেছি।

সিটি ব্যাংকের সিইও মাশরুর আরেফিন বলেন, ঢাকা লিট ফেস্ট আমাদের প্রাণের জায়গা। ২০১৫ সালের আমরা স্পন্সর করেছিলাম। ২০১৯ সালেও আমরা ছিলাম। আমরা আয়োজকদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ। যার কারণে আমি অনুরোধ করেছিলাম প্রাণ-প্রকৃতি নিয়ে সেশন রাখতে এবং তারা রেখেছেন।

আরো পড়ুন:
>পরীমণির বিছানা-বালিশে রক্ত, করবেন সংবাদ সম্মেলন
>বদলগাছীতে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ উৎসব ২০২৩ পালিত

আয়োজকরা জানান, চার দিনের এই আয়োজনে থাকবে কথোপকথনের একটি বৈচিত্র্যময় মিশ্রণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সেশন। শিশু ও তরুণদের জন্য আকর্ষণীয় আয়োজন, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, নাট্য, সংগীত এবং সাংস্কৃতিক পরিবেশনা।

লিট ফেস্টে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন ও সরাসরি টিকিটের লোকেশন জানা যাবে www.dhakalitfest.com-এ। অনুষ্ঠানে প্রবেশের জন্য ২০০ এবং ৫০০ টাকা টিকিট মূল্য ধরা হয়েছে। ১২ বছরের কম বয়সী ও শারীরিকভাবে অক্ষম ব্যক্তিরা বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবেন।

জানুয়ারি ০১.২০২৩ at ১৪:০৭:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এসএমডি/এমএইচ