মেশিনে মেট্রোরেলের টিকিট কিনতে যত টাকার নোট লাগবে

ছবি- সংগৃহীত।

মেট্রোরেলের টিকিট কাটার ইলেকট্রিক মেশিনে যে কোনও নোট ব্যবহার করা যাবে না। টিকিট কাটার সময় ৫০০ টাকা এবং ১০০০ টাকার নোট মেশিনে দেওয়া যাবে না। এছাড়া দেওয়া যাবে না পুরনো কোনও নোট। মেট্রোরেল পরিচালনাকারী কর্তৃপক্ষ ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমএএন সিদ্দিক বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) এ তথ্য জানান।

এছাড়া উদাহরণ হিসেবে বলেন, কেউ যদি পাঁচটি টিকেট কাটার জন্য মেশিনে টাকা দেন তাহলে তিনি ৫০০ টাকা দিতে পারবেন। সে ব্যবস্থাপনার জন্য টিকেট কাটার তিনটি মেশিনের একটিকে সেভাবে কমান্ড দিয়ে রাখা হবে। সেখান থেকে একাধিক টিকেট কাটতে হলে, মিনিমাম পাঁচটি টিকিট কাটতে হলে ৫০০ টাকা দিয়ে কাটা সম্ভব হবে।

তিনি আরও বলেন, অনেকেই পুরনো টাকা এবং ৫০০ বা এক হাজার টাকার নোট দিয়ে টিকেট কেনার কারণে মেশিনের সমস্যা দেখা দেয়। আজ প্রথম দিন মেশিনের সমস্যা সম্পর্কে আমরা অবহিত হয়েছি। আমরা কাল থেকে আবার এ বিষয়গুলো পর্যালোচনা করবো। তবে যারা ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট মেশিনে দিয়েছিল টিকেট পাননি তাদের টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে।

আরো পড়ুন :
>আ.লীগের মনোনয়নপত্র কিনলেন মাহিয়া মাহি
>গোমস্তাপুরে মূল্যবান মুদ্রা বিক্রয়ের নামে প্রতারনা চক্রের ৪ সদস্য গ্রেফতার

একক যাত্রার টিকিটের মূল্য ৬০ টাকা উল্লেখ করে ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরও বলেন, ৫০০ ও ১০০০ টাকা নোট ছাড়া এবং পয়সা ছাড়া যে কোনও নোট দিয়ে একটি টিকিট কেনা সম্ভব হবে মেশিন ব্যবহার করে।

ডিসেম্বর ২৯.২০২২ at ১৭:৫২:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এসএমডি/এসআর