ফুলবাড়ীতে সেতুর রেলিং নেই, স্ল্যাবে গর্ত

ফুলবাড়ীর বড়ভিটা বাজারসংলগ্ন বামনের কুড়ার নালায় নির্মিত সেতু।অনেক আগেই ভেঙে গেছে সেতুর দুই পাশের রেলিং ও প্রতিরক্ষা দেয়াল। স্ল্যাবে তৈরি হয়েছে বড় বড় গর্ত।
এতে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে মানুষ। সেতুটি নির্মিত হয়েছে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা বাজার-সংলগ্ন বামনের কুড়ার নালার ওপর।
বামনের কুড়ার নালার ওপর নির্মিত সেতু দিয়ে বড়ভিটা কমিউনিটি ক্লিনিক ও ইউনিয়ন পরিষদগামী মানুষ এবং বড়ভিটা বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়, বড়ভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বড়ভিটা বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করে। সেতুটি ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় যেকোনো সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা স্থানীয়দে।
প্রায় ৭০ ফুট দৈর্ঘ্যের ও ৩ ফুট প্রস্থের সেতুটি ৩০ বছর আগে নির্মাণ করা হয়। দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় এটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।বড়ভিটা উচ্চবিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুর ছাত্তার খন্দকার বলেন, সেতুটি দিয়ে শিশুশিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে যাতায়াত করে।
সেতুতে গর্ত থাকায় এবং রেলিং ভেঙে যাওয়ায় যেকোনো সময় অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটতে পারে। বড়ভিটা গ্ৰামের জেলেপাড়ার সরলা রানী সেন বলেন, ‘সেতুতে গর্তের কারণে কোনো যানবাহন এমনকি রিকশা পর্যন্ত চলতে পারে না। কয়েক দিন আগে আমার গর্ভবতী মেয়েকে হেঁটে ক্লিনিকে যেতে হয়েছে।
’পূর্ব ধনিরাম গ্ৰামের পশু চিকিৎসক মকছেদুল হক বলেন, সেতুটির পিলারসহ প্রতিরক্ষা দেয়াল ইটের তৈরি। এ কারণে ফাটল দেখা দিয়েছে।
বড়ভিটা ইউপির চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মিন্টু বলেন, সেতুটি ব্যবহার করে ইউপি কার্যালয়ের চাল, গমসহ নির্মাণসামগ্রী আনা-নেওয়া করতে হয়। সেতুর এই অবস্থার কারণে মালামাল পরিবহনে সমস্যা হচ্ছে। সেতু সংষ্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগসহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানানো হয়েছে।

আগস্ট ৩১,২০২২ at ১৮:৩৭:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ /আক /নদ /শই