কোটচাঁদপুরে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে গাছ কাটার অভিযোগ

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌর ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ হুমায়ন কবিরের বিরুদ্ধে আইন অমান্য করে নিয়মবহির্ভূত ভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাধারণ শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে সমালোচনার সৃষ্ঠি হয়েছে। এব্যাপারে সংশ্লিষ্ঠ কর্তাব্যাক্তিদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সচেতন মহল।

জানাযায়, কোটচাঁদপুর পৌর ডিগ্রি কলেজের পার্শ্ববর্তী স্থানে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বেশকিছু একাশি গাছ লাগানো হয়। এরমধ্যে কিছুগাছ পরিপক্ক হলেও অধিকাংশ গাছ অপরিপক্ক রয়েছে। গেল শনিবার সেই গাছের মধ্যে থেকে নিয়মবহির্ভূত ভাবে কলেজের অভ্যন্তরিন কাজের জন্য চারটি গাছ কাটা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

গাছ কাটার বিষয়ে অধ্যক্ষ হুমায়ন কবির বলেন, কলেজের কিছু ফার্নিচার ও অভ্যন্তরিন কাজের জন্য রেজুলেশন করে গাছগুলি কাটা হয়েছে। তবে কয়টি গাছ কাটা পড়েছে, সেটি জানি না। শিক্ষকদের নিয়ে কমিটি করা হয়েছে, তারাই বলতে পারবেন। অধ্যক্ষ দাবি করেন, কলেজের অভ্যন্তরিন কাজের জন্য গাছ কাটা যায়। বিক্রি করতে চাইলে কিছু নিয়ম-কানুন মানতে হয়।

এব্যাপারে কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি উপজেলা আ.লীগের সহ- সভাপতি ফারজেল হোসেন মন্ডল বলেন, গাছ কাটার ব্যাপারে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সব কিছু নিয়মানুযায়ী করা হচ্ছে। গাছ কাটার বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকেও বলা হয়েছে। উপজেলা বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) সিরাজুল ইসলাম জানান, যদি কোন গাছ পরিপক্ক হয়, তাহলে আইন মেনে কাটতে পারবেন।

এছাড়া কোন গাছ কেই কাটতে পারবেন না। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, কলেজের গাছ কাটার বিষয়ে আমি কিছইু জানিনা। কেই আমাকে কিছু বলেনি। বিষয়টি আমি খোঁজ নিয়ে দেখছি।

মে ২৫,২০২২ at ১৭:২৫:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এসএমরা/রারি