হিমেলের পরিবারকে ৫ লাখ টাকার চেক ও ঈদ সামগ্রী উপহার দিলো রাবি প্রশাসন

ট্রাক চাপায় নিহত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থী মাহমুদ হাবিব হিমেলের পরিবারকে ৫ লাখ টাকার একটি চেকসহ ঈদ সামগ্রী উপহার দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১ টায় নাটোরের কাপুরিয়াপট্টিতে হিমেলের নানার বাড়িতে তার মা মনিরা আক্তারের হাতে এসব উপহার তুলে দেয়া হয়।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক, জনসংযোগ প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পান্ডে, ছাত্র উপদেষ্টা তারেক নূর, পরিবহন প্রশাসক মোকসিদুল হকসহ প্রমুখ। এসময় তারা নিহত হিমেলের কবর জিয়ারত করেন।

এছাড়া উক্ত দুর্ঘটনায় আহত শিক্ষার্থী রিমেলের এক বছরের পড়াশুনার জন্য তাকেও ১ লাখ টাকার একটি চেক প্রদান করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গতকাল রিমেলের হাতে চেকটি হস্তান্তর করা হয়।

আরো পড়ুন :
আত্রাইয়ে প্রকল্প অবহিতকরণ ও উপজেলা এডভোকেসি নেটওয়ার্ক গঠন সভা অনুষ্ঠিত
কোটচাঁদপুরে তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে এমপি চঞ্চলের মত বিনিময় ও ঈদ উপহার প্রদান

এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার বলেন, “আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম, আস্তে আস্তে সেগুলো বাস্তবায়নের চেষ্টা করছি। আমরা হিমেলকে ফিরে পাবো না, কিন্তু তার মা এবং পরিবারের অন্য সদস্যদের যথা সম্ভব সাহায্যের চেষ্টা করতে তো সমস্যা নাই। এটা আমাদের দায়িত্ব। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে আজকে আমরা সামান্য কিছু ঈদসামগ্রী পাঠিয়েছিলাম, ৫ লাখ টাকার একটা চেকও দেয়া হয়েছে। আমি যেভাবে পারছি হিমেলের মায়ের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। আহত ছাত্র রায়হান প্রামাণিক রিমেলকেও আর্থিকভাবে সহায়তা করা হয়েছে।”

তিনি আরো বলেন, “হিমেলের মাকে সহায়তা করার জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর কাছেও আবেদন করেছি। আশা করছি, সেখান থেকেও ভালো একটা ফান্ড গঠন করে হিমেলের মাকে দিতে পারব।”

উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারি রাত পৌনে ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ হবিবুর রহমান হলের সামনের রাস্তায় ট্রাকচাপায় মাহমুদ হাবিব হিমেল নিহত হয়। হিমেল রাবির গ্রাফিক্স ডিজাইন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। এই ঘটনায় আহত হন রায়হান প্রামাণিক রিমেল নামের আরেকজন শিক্ষার্থী। তার চিকিৎসারও সার্বিক তত্ত্বাবধায়ন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এপ্রিল ২৮,২০২২ at ১৬:৫৮:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/আআ/রারি