শিবচরে বাস ও প্রাইভেটকারে নিহতের দূর্ঘটনায় চালকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

মাদারীপুর জেলার শিবচরের ভাঙ্গা-ঢাকা এক্সপ্রেসওয়েতে সড়ক দূর্ঘটনায় ৫ জন নিহতের ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে।

রবিবার (৩০ জানুয়ারি) সকাল ৯ টার দিকে দূর্ঘটনায় নিহত বেগম রোকেয়ার ছেলে শাহাদাত শিকদার বাদী হয়ে তিন যানবাহনের চালকের নামে মামলা দায়ের করেন। শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মো. মিরাজ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ”রবিবার সকালে বাঁচামারা গ্রামের নিহত রোকেয়া বেগমের ছেলে শাহাদাত শিকদার দূর্ঘটনাকবলিত ২ টি বাস ও ১ টি প্রাইভেটকারের চালকের নামে মামলা করেন।’

উল্লেখ্য, শনিবার(২৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় প্রথম দূর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই প্রাইভেট কারের যাত্রী খলিল মাতুব্বরের(৭০) মৃত্যু হয়। পরে হতাহতদের উদ্বার করতে আসা স্থানীয়দের উপর অপর একটি বাস উঠিয়ে দিলে দশ মিনিটের ব্যবধানে আরো ৩ জনের মৃত্যু হয়।এছাড়াও ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ১১ টার দিকে স্থানীয় আরো একজনের মৃত্যু হয় বলে জানা গেছে।

নিহতরা হলেন, প্রাইভেটকার যাত্রী সদর উপজেলার শিরখাড়া ইউনিনের বল্লবদী গ্রামের খলিল মাতুব্বর (৭০), শিবচর উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের ফেলু হাজীকান্দি গ্রামের মোস্তফা শিকদার (৫০), তার ভাই নুরুল ইসলাম শিকদারের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৪০), মাদবরচর ইউনিয়নের শরীফকান্দি গ্রামের ভ্যান চালক লিটন শরীফ (৪০), এবং মোফাজ্জেল হোসেন (৫৫)।

আরো পড়ুন:
পেকুয়ায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে যুবকের আত্মহত্যা
আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের যুগান্তকারী পরিবর্তন এসেছে- এমপি প্রিন্স

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে এক্সপ্রেসওয়ের বাঁচামারা এলাকায় মাদারীপুর থেকে ঢাকাগামী একটি প্রাইভেটকারকে (ঢাকা মেট্রোঃ গ-১৩১৪৫৫) পেছন দিক থেকে গ্রামীণ পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ধাক্কা দেয়। এসময় প্রাইভেটকারটি দুমড়ে-মুচড়ে গেলে ঘটনাস্থলেই মো.খলিল মাতুব্বর নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। দূর্ঘটনার খবর পেয়ে স্থানীয়রা দ্রুত এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করতে থাকে। এমন সময় গোপালগঞ্জ থেকে আসা ইমাদ পরিবহনের যাত্রীবাহী আরেকটি বাস স্থানীয়দের উপর উঠিয়ে দিলে ঘটনাস্থলেই বাঁচামারা এলাকার মোস্তফা শিকদার(৫৮), রোকেয়া বেগম(৪০) ও ভ্যানচালক মো.লিটন(৪০) মারা যান।এসময় মোফাজ্জেল হোসেন (৫৫) নামে আরো দুই জনসহ প্রাইভেটকারের চালক আশিকুর ও তার মা শিরিয়া বেগম (৫৫) গুরুতর আহত হন।পরে আহতদের মধ্য মোফাজ্জেল হোসেন ও শিরিয়া বেগমকে উদ্ধার করে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল নিয়ে গেলে রাত ১১ টার দিকে মোফাজ্জেল হোসেনের মৃত্যু হয়। এছাড়া আশিকুরকে স্থানীয় পাচ্চর রয়েল হাসপাতাল ভর্তি করা হয়।

এছাড়া সামান্য আহত অন্তত আরো ৩ জনকে রাতেই প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরেন।

শিবচর হাইওয়ে পুলিশ জানিয়েছে, প্রাইভেটকারের সাথে গ্রামীণ পরিবহনের বাসের দূর্ঘটনাটি প্রথম ঘটে। স্থানীয়রা উদ্ধার করতে এলে তাদের অন্য একটি বাস চাপা দেয়। গ্রামীন পরিবহনের বাসটি আটক করা সম্ভব হলেও চালক পালিয়ে যায়। এছাড়াও অন্য যাত্রীবাহী বাসটিও তৎক্ষনাৎ আটক করা সম্ভব হয়নি।

জানুয়ারি ৩০.২০২২ at ১৬:৩৮:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/রহ/জআ