পাঁচবিবিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী কাজে বাধা প্রদানের অভিযোগ

মো. মাসুদ পারভেজ রানা, জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার কুসুম্বা ও আওলাই ইউনিয়নে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারী ৭ম ধাপের ইউপি নির্বাচন। প্রচন্ড শীত উপেক্ষা করে প্রার্থীরা প্রচারণা চালিয়ে গেলেও আওলাই ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. একরামুল হক চৌধুরী তাওহীদের নির্বাচনী কাজে নৌকা প্রার্থীর লোকজন বাধা প্রদানের অভিযোগ করা হয়েছে রিটার্নিং অফিসারের নিকট।

আজ শনিবার রিটার্নিং অফিসারের নিকট দাখিল করা অভিযোগে জানা গেছে, মটরসাইকেল প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. একরামুল হক চৌধুরী তাওহীদ ও তার সমর্থকরা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা, পোষ্টার ও ব্যানার নিয়ে প্রচারণা চালাতে গেলে নৌকা মার্কার কর্মী, সমর্থকরা ব্যানার ও পোষ্টার লাগাতে বাধা প্রদান করে। উত্তেজিত জনতা তাদের বাধা দিলে তাদেরও মারপিট করা হয়।

মো. একরামুল হক চৌধুরী তাওহীদ জানান বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ছাতিনালী বাজার, চাঁনপাড়া, শিরট্টি, গোড়নাসহ বিভিন্ন এলাকায় মাইক প্রচারে বাধা প্রদান, ব্যানার পোষ্টার ছিড়ে ফেলা হয়। শনিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে আওলাই বিএম কলেজের সামনে তার প্রচারণা মাইক ভাংচুর করা হয়েছে। প্রশাসনের কাছে জীবনের নিরাপত্তা ও নির্বিঘ্নে নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর দাবী জানান।

আরো পড়ুন :
গাছও সেজদা করে, দোয়া পড়ে!
কোরিয়ান কে-পপ ডায়েট কি সত্যিই ওজন কমায়?

উপজেলা নির্বাচন কমিশনার মো. সহিদুল ইসলাম জানান, এবিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য পাঁচবিবি থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ পলাশ চন্দ্র দেব জানান, পুলিশ এলাকায় ম্যাজিষ্ট্রের সাথে টহল দিচ্ছে। অভিযোগের বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে।

২০১১ সালে মো. একরামুল হক চৌধুরী তাওহীদ আওয়ামীলীগের সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করে বিজয়ী হন। ২০১৬ সালে নৌকা নিয়ে সামান্য ভোটের ব্যবধানে হেরে যান। এবার দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করায় তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।

জানুয়ারি ২৯.২০২১ at ১৯:১৮:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/মাপারা/রারি