প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর পরিদর্শনে ইউএনও

কক্সবাজারের পেকুয়ায় মুজিবশতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ১ম পর্যায়ের ৩য় ধাপে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রমের নির্মাণাধীন ঘর পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার পূর্বিতা চাকমা।

বৃহষ্পতিবার দুপুরে রাজাখালী ইউনিয়নের সুন্দরী পাড়া এলাকায় নির্মাণাধীন ৮টি ঘর পরিদর্শন করেন তিনি। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূর্বিতা চাকমা বলেন, ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রমের অংশ হিসেবে উপজেলার যেসব ইউনিয়নে ঘর নির্মাণ হচ্ছে সে গুলোর কাজ সঠিকভাবে তৈরী করছে কিনা তা তদারকি করছি। নির্মাণ সামগ্রীর গুণগত মান ও নির্মাণ কাজে কোন ধরনের অনিয়ম হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এবিষয়ে সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করছি।

তিনি আরো বলেন, উপজেলার গৃহহীন ও ভূমিহীনদের মাঝে স্বপ্নের ঘর তৈরী কাজ সম্পন্ন হলে আনুষ্ঠানিক ভাবে উপকারভোগীদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

আরো পড়ুন:
ভোলায় জমির বিরোধ নিয়ে বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি সিলেটে পৌছেছেন

প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, আশ্রায়ণ- ২ প্রকল্প সারাদেশে ন্যায় পেকুয়ায়ও নির্মিত স্বপ্নের ঘরগুলোতে টিন সেটের পাকা দুইটি রুম, একটি বারান্দা, একটি রান্নাঘর ও একটি বাথরুম রয়েছে। এবারের মতো ১ম পর্যায়ে ৩য় ধাপে মোট ২২টি পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান করা হবে।

পরিদর্শন শেষে টইটং ইউনিয়নে ১৪টি ঘর নির্মাণের জায়গা প্রাথমিকভাবে নিধারন করা হয়েছে। পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসিফ আল জিনাত, উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) মোহাম্মদ লুৎফর রহমান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম, টইটং ইউনিয়ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, পেকুয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি ছফুওয়ানুল করিম, পেকুয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম দিদারুল করিম।

জানুয়ারি ২৮.২০২২ at ১৫:৪৮:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এএজ/জআ