নওগাঁয় দশম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ

নওগাঁয় আত্রাইয়ে বান্দাইখাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির (১৫) বছর বয়সী এক ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা আত্রাই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) উপজেলার বান্দাই খাড়া সাহাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। থানায় অভিযোগ দায়েরের ৯দিন পেরিয়ে গেলেও এখনো অভিযুক্ত কাওকে আটক কিংবা অপ্রহৃত ছাত্রীকে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

পরিবার ও অভিযোগের প্রেক্ষিতে জানাগেছে, আত্রাই উপজেলার বান্দাইখাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে স্কুলে আসা যাওয়ার পথে নানাভাবে উত্যক্তসহ কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলো সজিব সাহা (২২) নামে এক যুবক। সজিব বদলগাছী উপজেলার কুমারপুর গ্রামের শ্রী জিতেন সাহার ছেলে। সে বান্দাইখাড়া বাজারে তার মামার মুদি দোকানে কর্মচারীর কাজ করত। স্থানীয় একই এলাকার অপ্রহৃত ঐ দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে স্কুলে আসা যাওয়ার পথে নানান ভাবে উতক্ত করে আসছিল সে।

এ বিষয়টি জানাজানি হলে ঐ ছাত্রীর বাবা সজিব কে সতর্ক করেন। সজিব আর ডিস্টার্ব করবেনা মর্মে জানান। কিন্তু ঘটনার দিন (১৭ জানুয়ারি) বিকেল ৪টার দিকে ঐ ছাত্রী বাড়ি থেকে বাজারে আসার পথে সজিব মাঝ রাস্তা থেকে তার মামাদের সহায়তায় ঐ স্কুল ছাত্রীকে জোর পূর্বক সিএনজিতে তুলে নিয়ে উধাও হয়ে যান।

এরপর বিষয়টি জানাজানি হলে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও কোন সন্ধান মিলেনি তাদের। প্রত্যক্ষদর্শীদের মাধ্যমে অপহরেন বিষয়টি জানতে পেরে ঐ মেয়ের বাবা সজিব সাহাকে ১নং আসামী ও অপহরনে সহায়তা করায় সজিবের মামা শ্রী অর্জন সাহা এবং সঞ্জিত সাহাকে ২ ও ৩ নাম্বার আসামী করে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু অভিযোগ দায়েরের ৯দিন পেরিয়ে গেলেও এখনো কোন ব্যবস্থা নিতে পারেনি পুলিশ।

সাহাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা জামিরুল ইসলাম বলেন, ঘটনার দিন সোমবার বান্দাইখাড়া হাটের দিন ছিল, আমি বাড়ি থেকে হাটে আসতেছিলাম পথে বদ্ধমির মোড়ে দেখলাম একটা সিএজিতে করে অনেক দ্রুত বেগে ঐ মেয়েকে নিয়ে সজিব কোথায় যেন যাচ্ছে। পরে জানতে পারলাম ঐ মেয়েকে নিয়ে সজিব পালিয়েছে।

আরো পড়ুন :
শিবচরে হলুদ রঙে ছেয়ে গেছে কৃষকদের রঙিন স্বপ্ন
রাজশাহীতে বিএসটিআইয়ের অভিযান

ভুক্তভোগী মেয়ের বাবা পরিক্ষিত সাহা বলেন, ঘটনার দিন আমি দোকানে ছিলাম ইতোমধ্যে বাসা থেকে ফোন করে জানানো হল আমার মেয়েকে অনেকক্ষন ধরে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা তারপর আমিও বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজি করতে প্রতক্ষ্যদর্শী লোক মারফত জানতে পরলাম আমার মেয়েকে সজিব সিএনজি যোগে অপহরণ করেছে।

তার অপহরন কাজে সহয়তা করেছে তার দুই মামা, এখন তার সেই দুই মামা বিভিন্ন লোক দিয়ে আমাকে সব মেনে নেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছে। আমি এ সম্পর্কটা মেনে নিলে আমার মেয়েকে তারা বের করে দিবে, নয়ত দিবেনা এমন কথা বলছে।

তিনি আরো বলেন, ঐ ছেলে দীর্ঘদিন ধরে আমার মেয়েকে স্কুলে আসা যাওয়ার পথে প্রায় উতক্ত করত। আমি এর আগে নিষেধ করেছি তবুও সে নিষেধ মানত না। অপহরনের বিষয়ে আমি থানায় অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার পাচ্ছিনা।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শ্রী অর্জন সাহা এবং সঞ্জিত সাহার মন্তব্য জানতে চাইলে তারা বলেন, আপনারা যা শুনছেন আমরাও তার শুনেছি এ বিষয়ে আমরা কিছু জানিনা, কোন কথাও বলতে চাইনা।

আত্রাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি অপ্রহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধারের চেষ্টা অব্যহত রয়েছে।

জানুয়ারি ২৬.২০২১ at ১৫:৩০:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/সোরা/রারি