বেড়ায় পাওনা টাকা আদায়কে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ১জন নিহত

পাওনা টাকা আদায়কে কেন্দ্র করে পাবনার বেড়া উপজেলার নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের চর সাফুল্লা গ্রামে দুই গ্রামবাসীদের মধ্যে এক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে তোতা ব্যাপারী (৬০) নামের এক ব্যক্তি নিহত ও অন্তত দশজন আহত হয়েছে। নিহত তোতা ব্যাপারী ওই গ্রামের আহেজ ব্যাপারীর ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে ৭ই জানুয়ারি শুক্রবার সকালে।

আহতরা বেড়া হাসপাতালসহ পাবনা, বগুড়ায় চিকিৎসাধীন রয়েছে। ঘটনা নিয়ে দুই গ্রামের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। গুরুতর আহতরা হলেন, আব্দুল আজিজ (৪০), রুশনাই (১৭), জিয়া ব্যাপারী (৩০), বছির উদ্দিন (২০), মজিবর রহমান (৩৫), আরিফ হোসেন( ২৫), রমজান আলীর (৪০)। এদের স্থানীয় বেড়া হাসপাতাল ও পাবনা ও বগুড়াতে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

আহত পরিবার ও বেড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার জানান, প্রায় ১৮ মাস আগে চর সাফুল্লাপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের মাধ্যমে নিহত তোতা মিয়ার ছেলে আখের আলী সৌদি আরব যান। সেখানে কয়েক মাস থাকার পরে শফিকুল সেখানে থেকে গেলেও আখের আলী থাকতে না পেরে দেশে ফিরে আসেন।

আরো পড়ুন :
কুড়িগ্রামে ফেলানী হত্যার ১১ বছর: ন্যায় বিচারের প্রতীক্ষায় পরিবার
শার্শায় ৫শ’ অসহায় ও দঃস্থ পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন যুবলীগ নেতা নাজমুল

দেশে এসে আখের আলী শফিকুলের পরিবারের কাছে তাকে বিদেশে পাঠানোর টাকা ফেরত চান। এ নিয়ে র্দীঘদিন ধরেই উভয় পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলছিল। ঘটনার সূত্রধরে শুক্রবার সকালে উভয় পরিবারের মধ্যে প্রথমে কথা কাটাকাটি ও এক পর্যায় সংঘর্ষ বেধেঁ যায়।

সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ১১ জন আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে তোতা মিয়াকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন। খবর পেয়ে বেড়া মডেল থানার পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

ওই এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ওসি অরবিন্দ আরো জানান, জড়িতদের গ্রেফতার ও দোষীদের আইনের আওতায় এনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জানুয়ারি ০৭.২০২১ at ১৮:০৩৯০:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/হাঅর/রারি