শিবগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে ৮ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষন, থানায় মামলা

বিজ্ঞাপন

বগুড়ার শিবগঞ্জে ৮ম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে একাধিকবার ধর্ষন, থানায় মামলা। থানার মামলা সূত্রে জানা যায়, পৌর এলাকার সুলতানপুর নয়াপাড়া গ্রামের আশরাফুল ইসলাম এর পুত্র ২ সন্তানের জনক খায়রুল ইসলাম (২৮) এর কু-নজর পরে পার্শ্ববর্তী কানুপুর গ্রামের হত দরিদ্র পরিবারের কন্যা শিবগঞ্জ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির পড়ুয়া ছাত্রী (১৪) উপর।

ওই ছাত্রীকে ধর্ষন করার কু-মতলব মাথায় চেপে বসে লম্পট খায়রুল ইসলামের। গত বুধবার ওই ছাত্রী বার্ষিক পরীক্ষা দিয়ে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে ওই লম্পট কৌশলে তাকে ফুসলিয়ে শিবগঞ্জ পাইলট স্কুল এলাকায় তার ভাড়া বাসায় নিয়ে গিয়ে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ওই কিশোরীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষন করে।

আরো পড়ুন :
নওগাঁ জেলা ফুটবল টুর্নামেন্ট এর শুভ উদ্বোধন
চৌগাছায় ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণ, দুই ধর্ষক গ্রেপ্তার

পরে ওই কিশোরী অসুস্থ্য হয়ে পড়লে বিকাল ৫ টার দিকে লম্পট খায়রুল তার সহযোগি কয়েক জনকে সঙ্গে নিয়ে দহিলা ঈদ মাঠ এলাকায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। ওই কিশোরী বাড়ি ফিরে পরিবারের লোকজনকে ধর্ষনের বিষয়টি জানালে, ওই কিশোরীর পিতা আমজাদ হোসেন বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে মামলা নেওয়া হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। তিনি বলেন, কিশোরীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য বগুড়া শজিমেকে পাঠানো হয়েছে।

নভেম্বর ২৬.২০২১ at ২৩:৫৮:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এসএমডি/রারি