খবরের কাগজে ‘বিষ’, ক্যান্সারের আশঙ্কা!

বিজ্ঞাপন

মুড়ি-চপ-সিঙাড়া থেকে শুরু করে ফলের দোকান, মিষ্টান্ন ভান্ডার, ঔষধালয়সহ মুদি দোকানেও কাগজের ঠোঙা ব্যবহৃত হয়। কিন্তু খবরের কাগজ দিয়ে তৈরি ঠোঙার ব্যবহারে অপেক্ষা করছে মারাত্মক বিপদ! মানে মারাত্মক বিষ ঢুকছে শরীরে, বাড়ছে ক্যান্সারের ভয়।

প্রতিদিন পড়ার পর একটা নির্দিষ্ট স্থানে জমিয়ে রাখা হয় পত্রিকাগুলো। দিন শেষে এ খবরের কাগজ/পত্রিকাগুলোর আর কোন মূল্য থাকে না। দিন শেষে এগুলো ব্যাবহার হয় বিভিন্ন কাজে। এগুলো পেতে বসা থেকে তার ওপরে খাবার রেখে খাওয়া সবই করা হয়। এছাড়া, একসঙ্গে জমানো পত্রিকাগুলো খুচরা দরে বিক্রিও করা হয় ফেরিওয়ালার কাছে।

এসব পত্রিকা দিয়ে ঠোঙা বানিয়ে বিক্রি করা হয় নানা পণ্য। ঠোঙায় চাল, ডাল থেকে মুড়ি-তেলেভাজা, মিষ্টি, ফল অনেক কিছুই সরবরাহ করা হয়। কিন্তু ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পত্রিকা দিয়ে তৈরি ঠোঙায় খাবার খেলে ক্যান্সার থাবা বসাতে পারে শরীরে। কারণ পত্রিকার তৈরি ঠোঙাতে বিষের সন্ধান পেয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

আরো পড়ুন:
বিয়েতে ক্যাটরিনা কাইফ লাখ টাকার মেহেদি পরবেন!
প্রথম ইনিংসে লিটনের সেঞ্চুরি, অপেক্ষায় মুশফিক

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের খাদ্যসুরক্ষা ও গুণমান নজরদানকারী সংস্থা ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ডস অথরিটি অফ ইন্ডিয়া (এফএসএসএআই) এক বিবৃতিতে জানায়, পত্রিকা দিয়ে তৈরি ঠোঙায় খাবার রাখা খুবই অস্বাস্থ্যকর। পরিষ্কার, স্বাস্থ্যকরভাবে রান্না করা খাবারও পত্রিকায় মুড়ে রাখলে বিষক্রিয়া হতে পারে। পত্রিকায় প্রিন্টিং ইঙ্কে ব্যবহৃত রং, পিগমেন্ট, প্রিজারভেটিভ, রাসায়নিক, প্যাথজেনিক মাইক্রো অরগ্যানিজম পেটে গেলে বড়সড় শারীরিক সমস্যা হতে পারে। রিসাইকল করা কাগজ দিয়ে তৈরি কার্ডবোর্ড বাক্সে থাকা রাসায়নিক পেটে গেলে হজমের সমস্যা হতে পারে। এর ফলে যে কোনো বয়সেই ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

জানা যায় পত্রিকায় ছাপার জন্য ব্যবহৃত কালি খাবারের সঙ্গে মিশে যাওয়ায় ক্যান্সারের মতো মারাত্মক রোগের আশঙ্কা রয়েছে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, পত্রিকা দিয়ে তৈরি ঠোঙায় রাখা খাবার শরীরের জন্য বিষাক্ত হতে পারে। পত্রিকায় ব্যবহার করা কালিতে থাকে একাধিক বায়োঅ্যাকটিভ পদার্থ, যা খবরের কাগজে মুড়ে রাখা বা ঠোঙায় রাখা খাবারে সহজেই সংক্রমিত হয়। এটি শরীরের ওপর বিষাক্ত প্রভাব ফেলতে পারে। আবার এই কালিতে যে সলভেন্ট ব্যবহার করা হয় তাও শরীরের জন্য কার্সিনোজেনিক হতে পারে।

নভেম্বর ২৬.২০২১ at ২১:১৪:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/সনি/জআ