ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ৩০ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত ৩০ শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করেছে (চমেক) কর্তৃপক্ষ। আট শিক্ষার্থীকে দুই বছর, দুই শিক্ষার্থীকে দেড় বছর এবং ২০ শিক্ষার্থীকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। এদিকে সংঘর্ষের কারণে বন্ধ হওয়ার ২৮ দিন পর আগামী ২৭ নভেম্বর খুলবে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ।

এর আগে ২৯ অক্টোবর রাতে ও ৩০ অক্টোবর সকালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী এবং নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারীদের মধ্যে দুই দফায় সংঘর্ষ হয়।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এসব সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ সাহেনা আক্তার।

আরো পড়ুন:
শর্টগান নিয়ে বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচনী ক্যাম্প উদ্বোধন
মৃত্যুবার্ষিকীর ঠিক আগ মুহূর্তেই ম্যারাডোনার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

সংঘর্ষের ঘটনায় পাঁচলাইশ ও চকবাজার থানায় পাল্টাপাল্টি দুটি মামলা হয়। পাঁচলাইশ থানার মামলায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সংঘর্ষের জেরে ৩০ অক্টোবর সন্ধ্যায় ক্যাম্পাস অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। ওই দিন সন্ধ্যাতেই শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে তদন্ত কমিটি করা হয়।

তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্য সাত কার্যদিবস সময় দেয়া হয়। এরপর সময় আরও ১০দিন বাড়িয়ে দেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ। রবিবার ছিল প্রতিবেদন জমা দেয়ার দিন। তবে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতাদের সাক্ষাৎ পাওয়া যাচ্ছে না এমন কারণ দেখিয়ে প্রতিবেদন জমার তারিখ বুধবার পর্যন্ত করা হয়।

নভেম্বর ২৩.২০২১ at ১৭:৩৭:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/ভক/জআ