প্রকাশ্যে বিষ খেলেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত এক শিক্ষার্থী

বিজ্ঞাপন

সিরাজগঞ্জের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিনের স্থায়ী বহিষ্কার চেয়ে আবারও আমরণ অনশণ করছেন শিক্ষার্থীরা।

সেখান থেকেই বক্তব্য দেয়া কালে প্রকাশ্যে বিষ পাণ করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন রফিকুল ইসলাম শামীম নামে এক শিক্ষার্থী। সে অভিযুক্ত শিক্ষিকার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষার্থী।

রফিকুল ইসলাম শামীমকে এ্যাম্বুলেন্স যোগে হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া শিক্ষার্থী আবু জাফর হোসাইন ও রাকিব হোসেন।

রোববার (২৪ অক্টোবর), দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আন্দোলনে বক্তব্য দিচ্ছিলেন সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষার্থী। শামীম এসময় সে হঠাৎ করেই তার পকেট থেকে একটি বিষের বোতল বের করে প্রকাশ্যে পাণ করেন। এসময় সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়েছে।

আরো পড়ুন :
ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ফারুক, মহাসচিব দ্বীপ
যুবলীগ চেয়ারম্যান পরশের নামে অর্থ আদায়ে দুজন কারাগারে

শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) রাকিব হাসনাত বলেন, রফিকুল ইসলাম নামে এক শিক্ষার্থীকে বিষপান করা অবস্থায় দুপুর ১টার দিকে ভর্তি করা হয়েছে। তাকে আমরা চিকিৎসা দিচ্ছি। তবে সে আশংকামুক্ত বলে জানান এই কর্মকর্তা।

এর আগে, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিনের স্থায়ী বহিষ্কার চেয়ে শুক্রবার রাত থেকে দ্বিতীয় দফায় আবারও আন্দোলন ও আমরণ অনশণে নামেন শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার বিকালে অভিযুক্ত শিক্ষিকার বিষয়ে সিন্ডিকেট সভায় কোনও সিধ্যান্ত না নেওয়ায় দ্বিতীয় দফায় আবারও অনশণের মধ্যে দিয়ে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

অক্টোবর ২৪.২০২১ at ১৫:১২:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/অরা/রারি