শচীনের পর বাংলাদেশি সাদিদে প্রশংসায় শেন ওয়ার্ন

ছবি: সংগৃহীত
বিজ্ঞাপন

বরিশালের খুদে ক্রিকেটার ‘রশিদ খান’ তোলপাড় ফেলে দিয়েছেন ক্রিকেট বিশ্বে। শচীন টেন্ডুলকার, রশিদ খান থেকে এবার শেন ওয়ার্ন, সাদিদের প্রশংসায় মেতেছেন সবাই।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। বরিশালের ছয় বছরের আছাদুজ্জামান সাদিদ বল ঘুরাচ্ছেন আফগানিস্তানের রশিদ খানের মতোই। সেই ভিডিও দেশের গন্ডি পেড়িয়ে ভারতেও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি সম্প্রতি নিজের ফেসবুকে শেয়ার করেছেন লিটল মাস্টার হিসেবে খ্যাত ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) শচীন ভিডিওটির ক্যাপশনে লেখেন, ‘ওয়াও! এই ভিডিওটি এক বন্ধুর মাধ্যমে পেয়েছি। এটা চমৎকার। এই খেলাটার প্রতি এই ছোট ছেলের ভালোবাসা ও প্যাশন সুস্পষ্ট।’ এই পোস্টে মানুষ বন্যা বইয়ে দিচ্ছেন সাদিদের প্রতি শুভকামনায়।

এদিকে শচীনের পর এবার সেই ভিডিও শেয়ার দিয়ে সাদিদের বোলিংয়ের প্রতি মুগ্ধতা প্রকাশ করলেন লেগ স্পিন কিংবদন্তি ওয়ার্ন। অস্ট্রেলিয়ার এই কিংবদন্তি মন্তব্য করেন, ‘ওয়াও! এটি (ভিডিওটি) আমাকে মাত্রই পাঠানো হয়েছে। কী চমৎকার! কে এটি? এক কথায় অসাধারণ। দুর্দান্ত বোলিং চালিয়ে যাও।’

তিন বছর বয়স থেকেই ক্রিকেটে হাতেখড়ি সাদিদের। ক্রিকেটের সঙ্গে সখ্য শুরুতে ব্যাটিং দিয়ে হলেও এখন বোলিংয়েও মুগ্ধতা ছড়াচ্ছে সাদিদ। আছাদুজ্জামান সাদিদ নিজের আদর্শ হিসেবে ফলো করেন আফগান লেগ স্পিন তারকা রশিদ খান এবং অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি লেগি শেন ওয়ার্নকে।

এর পেছনে অবশ্য কারণও জানিয়েছে খুদে এ ক্রিকেটার। সে বলে, রশিদ খান এবং শেন ওয়ার্নের খেলা ভালো লাগে আমার। রশিদ খানের কোনো ম্যাচ মিস করি না বল বাই বল ফলো করি।

আরও জানান, ও ছোটবেলা থেকেই ক্রিকেট পছন্দ করে। মাত্র তিন বছর বয়সেই হাতে তুলে নেয় ব্যাট। আর গত ৬-৭ মাস ধরে বোলিংটাও নিয়মিত করছে।

আরো পড়ুন:
বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ
নাম পরিবর্তন হচ্ছে ফেসবুকের, নতুন নাম মেটাভার্স

এদিকে বোলিং ছাড়াও ব্যাটিংয়েও সমানতালে সিদ্ধহস্ত খুদে এ ক্রিকেটার। তবে বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল কিংবা গ্লেন ম্যাক্সওয়েল নন, তার আদর্শ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। গণমাধ্যমকে সে বলে, সাকিবের খেলা আমার ভালো লাগে। সাকিব অলরাউন্ডার। তার মতো আমিও খেলতে চাই।

এ বছর স্থানীয় উলালঘনি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে সাদিদ। তবে করোনা মহামারির কারণে এখানো স্কুলের সঙ্গে পরিচয় হয়নি তার।

বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বে লেগ স্পিনারদের জয়জয়কার। জাতীয় দলে তারা অপরিহার্য হয়ে উঠছেন। বাংলাদেশে দীর্ঘদিন ধরে একজন স্পেশালিস্ট লেগির অভাব রয়েই গেল। মাঝে জুবায়ের হোসেন লিখন এ অভাব কিছুটা মেটালেও তিনিও এখন পাদপ্রদীপের বাইরে। আর তাই খুদে রশিদ খানে নতুন স্বপ্ন দেখছে লাল-সবুজের সমর্থকরা।

অক্টোবর  ২০.২০২১ at ১৫:৪৫:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/সনি/জআ