শর্ত না মানলে বার্তা মুছে দেবে টুইটার

বিজ্ঞাপন

ভুয়া/মিথ্যা খবর ছড়াতে বেশি ব্যবহৃত হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার। এ সমস্যা ঠেকাতে উদ্যোগ নিয়েছে মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটার।

তথ্যপ্রযুক্তির যুগে জীবনে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে বিভিন্ন অনলাইন মিডিয়া। তার মধ্যে প্রথম সারিতে রয়েছে ফেসবুক, টুইটার এবং ইউটিউব। পরিষেবা দেওয়ার পাশাপাশি প্রতিটি সংস্থা নিজেদের প্ল্যাটফর্মকে সুরক্ষিত রাখতে তৎপর।

এর অংশ হিসেবে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার আবারও নিয়ে আসছে নতুন ফিচার। এবারের ফিচারের মাধ্যমে কোনো ব্যবহারকারী বিদ্বেষপূর্ণ মন্তব্য করলেই তাকে টুইটারের পক্ষ থেকে আগাম সতর্ক করে দেওয়া হবে। কোনো মন্তব্যের জন্য যেন বিদ্বেষ ছড়িয়ে না পড়ে, তার জন্যই নিয়ে আসা হচ্ছে এই নতুন ফিচার।

বর্তমানে রেগুলার টুইট অ্যাকশন বারের মাধ্যমে কোনো কোনো টুইটে কন্টিনিউ রিপ্লাই আসতে থাকে। এ ছাড়া সেখানে রিপ্লাই, রিটুইট, লাইক এবং শেয়ার অপশনের বাটনও থাকে। এর ফলে যে কোনো টুইটেই কমেন্ট করা যায় বা সেটি রিটুইট করা যায়।

কিন্তু নতুন ফিচারের মাধ্যমে কেউ কোনো ধরনের নেতিবাচক মন্তব্য করলে সেটি আর দেখা যাবে না। টুইটারের পক্ষ থেকে সেটি মুছে দেওয়া হবে এবং যে ব্যবহারকারী সেই মন্তব্যটি করবেন, তাকেও সতর্ক করে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন:
দুর্গাপূজা শুধু হিন্দু সম্প্রদায়ের নয়, সার্বজনীন উৎসব: প্রধানমন্ত্রী
বিনা খরচে যুক্তরাষ্ট্রে পড়ার সুযোগ

তবে টুইটের টপিক অনুসারে সেটা বিবেচনা করা হতে পারে। এ ছাড়া যে টুইট করেছে এবং যে মন্তব্য করেছে, তাদের মধ্যে কেমন ধরনের সম্পর্ক রয়েছে, সেটা জেনে নিয়ে সে ক্ষেত্রেও বিবেচনা করা হতে পারে। টুইটারের পক্ষ থেকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

অ্যান্ড্রয়েড এবং আইফোনে ফিচারটি এখনো পরীক্ষার পর্যায়ে রয়েছে। নতুন এই ফিচারের উদ্দেশ্য হলো, এই প্ল্যাটফর্মে বিদ্বেষপূর্ণ মন্তব্যের বদলে ইতিবাচক মন্তব্য বাড়িয়ে তোলা। এই নতুন ফিচার কীভাবে কাজ করবে, তা টুইটারের পক্ষ থেকে একটি ইমেজ শেয়ার করে জানানো হয়েছে।

অক্টোবর  ১১.২০২১ at ১২:০৭:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/সনি/জআ