জাতিসংঘের সঙ্গে ভাসানচর চুক্তি আজ

মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী / ফাইল ছবি
বিজ্ঞাপন

দীর্ঘ অপেক্ষার পর, শনিবার ৯ (অক্টোবর) স্বাক্ষর হবে ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের মধ্যে মানবিক কার্যক্রম চালানোর বিষয়ে জাতিসংঘ-বাংলাদেশ সমঝোতা স্বারক। এর ফলে আনুষ্ঠানিকভাবে ভাসানচরে মানবিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে যাচ্ছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা- ইউএনএইচসিআর।

বুধবার (৬ অক্টোবর) দুর্যোগ ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মহসিন সময় সংবাদকে জানান, শনিবার দুপুর ১২টায় মন্ত্রণালয়ে সমঝোতা স্বারক হবে। ভাসানচরে যাওয়া নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে আলোচনা চলছিল ইউএনসিআরএ’র এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের। এ চুক্তির মাধ্যমে কক্সবাজারের মতো ভাসানচরে সার্বিক মানবিক কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

এদিকে গত বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে আলোচিত রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ খুন হন। সে সময় ক্যাম্পের নিজ অফিসে অবস্থান করছিলেন মুহিবুল্লাহ। এ সময় একদল দুর্বৃত্ত তার ওপর গুলি চালায়। যার তিনটি লাগে তার শরীরে।

স্বজনরা জানান, বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে শার্ট-প্যান্ট, মুখে মাস্ক পরে ও হাতে অস্ত্র নিয়ে ১০-২০ জন অফিসে ঢুকেই গুলি করে পালিয়ে যায়। যারা গুলি করেছে তাদের অনেকের পরিচয় জানা গেছে। যারা গুলি করেছে তারা রোহিঙ্গা। তাদের মধ্যে কয়েকজনের মুখ চেনা আর কয়েকজনকে চেনা যায়নি। তবে সবাই ক্যাম্পের বিভিন্ন ব্লকের বাসিন্দা, দিনে তারা সবাই ক্যাম্পে ঘোরাফেরা করে। তার এই মৃত্যু ক্ষুব্ধ ও আতঙ্কিত করে তুলেছে সাধারণ রোহিঙ্গাদের।

আরও পড়ুন:
সখীপুরে ট্রাক এবং মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১
জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের জনগণের আশা ভরসার স্থল-মুনসুর রহমান মুন্নু

পরে এ ঘটনায় নিহতের ভাই হাবিুল্লাহ বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাতে উখিয়া থানায় মামলা দায়ের করে। তবে মামলায় কোনো নাম উল্লেখ করা হয়নি। সব আসামি অজ্ঞাত দেখানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দমনপীড়নের মুখে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর দেশটির রাখাইন রাজ্য থেকে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় ৭ লাখের বেশি রোহিঙ্গা। সেই সময় বাস্তুচ্যুত অন্য রোহিঙ্গাদের সঙ্গে বাংলাদেশে এসেছিলেন মুহিবুল্লাহ ও তার পরিবার।

অক্টোবর ০৯.২০২১ at ১০:১১:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/সনি/জআ