ক্ষেতলালে মানবিক সেবায় এগিয়ে এলেন সমাজসেবক ইলিয়াস

বিজ্ঞাপন

জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে গত ১২ সেপ্টেম্বর সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত আমিনুর ইসলামের পরিবারের প্রতি সমস্ত দায়দায়িত্ব নিতে মানবিক সেবায় এগিয়ে এলেন ওই এলাকার সমাজসেবক ইলিয়াস হোসেন।

জানা গেছে, ১২ সেপ্টেম্বর রবিবার সন্ধ্যা ৬ টায় উপজেলার শালবন গ্রামের আলাল উদ্দিনের ছেলে আমিনুর ইসলাম (৩৫) তার নিজ বাড়ি হইতে মোটরসাইকেল যোগে জয়পুরহাট যাবার উদ্দেশ্যে রওনা দিলে, নিশিন্তা টু বটতলী রোডের, বটতলী গ্রামীণ ব্যাংক সংলগ্ন স্থানে একটি মাইক্রোবাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে গুরুত্বরভাবে আহত হয়।

আমিনুরের সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঢাকা থেকে ছুটে আসেন ওই গ্রামের কৃতিসন্তান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক ইলিয়াস হোসেন।

আরো পড়ুন :
মহাসড়কে শৃংখলা রক্ষায় বারবাজার হাইওয়ে পুলিশের সচেতনতামুলক ও কমিউনিটি বিট পুলিশিং সমাবেশ
ভোলায় নবগঠিত সেচ্ছাসেবক দলের পরিচিতি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

গুরুতর আহত আমিনুর ইসলামের উন্নত চিকিৎসার জন্য তিনি নিজে তাকে বগুড়া সজিমেক হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় সেখানে চিৎিসাধীন অবস্থায় ১৩ সেপ্টেম্বর সোমবার বেলা ১২ টার সময় তার মৃত্যু হয়। তার এই অকাল মৃত্যুতে এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া। নিহত আমিনুরের স্ত্রী সুলতানা ও ৬বছর বয়সী একটি শিশু সন্তান আছে বলেও জানা যায়।

নিহত আমিনুরের স্ত্রী সুলতানা ও ৬বছর বয়সী শিশু সন্তানের অসহায়ত্বের বিষয়টি হৃদয়ে স্পর্শ করে ওই গ্রামের কৃতিসন্তান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক ইলিয়াস হোসেনের। তাই তিনি নিহত পরিবারের সমস্ত দায়দায়িত্ব নেয়ার সিদ্ধান্ত নেন। নিহতের জানাযা নামাজে দাঁড়িয়ে তিনি প্রুতিশ্রুতি দেন ওই পরিবারের সকলের ভরোনপোষন সহ ৬ বছরের ছেলে লোকমান হোসেন এর লেখাপড়া হইতে যাবতীয় খরচ এবং নিহতের ছোট ভাই রায়হান (২৬) এর চাকুরীর ব্যবস্থা করে দিবেন বলে আশ্বাস দেন।

ইলিয়াস হোসেনের এমন প্রুতিশ্রুতির কথা শুনে অত্র গ্রামের কামরুল হোসেন, দেলুয়ার, উজ্জল সহ অনেকে বলেন এমন উদার মনের মানুষ খুব কমই আছে। ইলিয়াস হোসেনের মানবিকতার জন্য আমরা খুবই খুশি। সবাই নিহত পরিবারের ও ইলিয়াস হোসেন এর জন্য দোয়া করেন।

সেপ্টেম্বর  ১৪.২০২১ at ২১:৪৩:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/মোশাইশা/রারি