করোনায় সাহেব আলীর অক্সিজেন সাপোর্ট পেয়েছে অনেক মানুষ

বিজ্ঞাপন

করোনাকালীন সময়ে গরীব ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে অক্সিজেন সাপোর্ট দিয়ে করোনা আক্রান্ত রোগীদের সাহায্য করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন শাহাবুদ্দীন সাহেব। তিনি যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের মৃত সৈয়দ আলী সরদার ও রহিমা বেগমের ছেলে এবং বাঁকড়া বাজারের একজন তরুণ ব্যবসায়ী।

“মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য” এই দর্শন ধারণ করে শাহাবুদ্দীন ওরফে সাহেব আলী করোনাকালীন সময়ে করোনা আক্রান্ত রোগীকে অক্সিজেনের ফেরিওয়ালা হিসাবে বিনামূল্যে অক্সিজেন সাপোর্ট দিয়েছেন। বাংলাদেশে যখন করোনার প্রকোপ বেড়ে গিয়েছিল, তখন তার নিজ এলাকা বাঁকড়াতেও করোনার রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। করোনায় কয়েকজন ব্যক্তি মৃত্যুবরণও করেছিলেন।

আরো পড়ুন :
সোনমকে অপমান, জবাব দিলেন অনিল
কোনও ব্যাংক যাতে বিপদে না পড়ে, বিনিয়োগ খতিয়ে দেখছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক

সেই সময় তরুণ এই ব্যবসায়ী মানবিক উপলব্ধি থেকে বিনামূল্যে প্রায় ৬০/৭০ টি সিলিন্ডার অক্সিজেন দিয়ে এলাকার গরীব, দঃখী ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। কেউ অসুস্থ হয়েছেন শুনেই তিনি তার বাড়িতে অক্সিজেন নিয়ে হাজির হয়েছেন। তার অক্সিজেন সাপোর্টে ৩০/৩৫জন মানুষ সুস্থ হয়েছেন। শুধুমাত্র একজন মানুষ মারা গিয়েছেন। সুস্থ মানুষগুলো যখন তার কাছে এসে ধন্যবাদ জানান, তখন শাহাবুদ্দীন নিজেকে ধন্য মনে করেন।

শাহাবুদ্দীন ওরফে সাহেব আলী এ প্রতিনিধিকে জানান, বাঁকড়া থেকে পার্শ্ববর্তী সকল উপজেলা শহর (ঝিকরগাছা, কলারোয়া, শার্শা ও মণিরামপুর) প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। এখানে সরকারী কোন হাসপাতাল নেই। ফলে এই জায়গার একজন অসুস্থ রোগী অক্সিজেন সাপোর্ট পাওয়ার আগেই মারা যান।

এই উপলব্ধি থেকে মানুষকে অক্সিজেন দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। আমার ব্যবসার একটি অংশ অর্থ আমি করোনা রোগীদের সাহায্যে ব্যয় করি। আমার এই অক্সিজেন সাপোর্টের কার্যক্রম সবসময় অব্যাহত থাকবে। শুধু করোনা রোগীর জন্য নয়, যেকোন অসুস্থ মানুষের জন্য এই অক্সিজেন সেবা চালু থাকবে।

সেপ্টেম্বর  ১৪.২০২১ at ১৮:৪০:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এমআ/রারি