দেশ ছাড়লেন সাকিব, ভিসা জটিলতায় আটকে গেলেন মুস্তাফিজ

বিজ্ঞাপন

আইপিএল বাকি অংশে খেলতে একই ফ্লাইটে দুবাই যাওয়ার কথা ছিল সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমানের। কিন্তু ভিসা জটিলতার কারণে সেটি আর হলো না। তবে এ সমস্যা সমাধান হলে সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১টা ৪০ মিনিটে উড়াল দেবেন মুস্তাফিজ।

রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে আরব আমিরাতের উদ্দেশে রওয়ানা হন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। তবে শেষ মুহূর্তে ভিসা জটিলতায় রাত ১টা ৪০ মিনিটে ছেড়ে যাওয়া ফ্লাইটটিতে করে যেতে পারেননি মুস্তাফিজ।

দেশ ছাড়ার আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন সাকিব আল হাসান। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে রোববার সন্ধ্যায় এই তথ্য জানান সাকিব। সঙ্গে শেয়ার করেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তোলা ছবিও। সাকিব লিখেন, ‘সন্ধ্যায় বিসিবি সভাপতি পাপন ভাইকে নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে পারাটা ছিল সম্মানজনক।’

করোনার প্রকোপে প্রথম দফায় স্থগিত হয়ে যাওয়ার পর আবারও শুরু হচ্ছে আইপিএল। বাকি ৩১ ম্যাচ হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে আইপিএলের বাকি অংশ। আইপিএলে সাকিবের দল কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর) আর ‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজ খেলছেন রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে।

আরও পড়ুন:
ট্রিপে সিল পড়ে নামিদামি সব ব্র্যান্ডের, মিটফোর্ড থেকে ছড়ায় নকল ঔষধ
৫ বছরে কক্সবাজার সৈকতে ১৯ পর্যটকের মৃত্যু

প্রথম দিন লড়বে চেন্নাই সুপার কিংস ও মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। আর সাকিবের দল কেকেআর-এর প্রথম ম্যাচ ২০ তারিখ, প্রতিপক্ষ রয়্যালস চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু (আরসিবি। গত মার্চ-মে’তে হওয়া আইপিএলের প্রথম অংশে ছন্দহীন ছিলেন সাকিব। তিন ম্যাচে সুযোগ পেয়ে ২ উইকেট ও ৩৮ রানের বেশি করতে পারেননি তিনি।

তবে ছন্দে ছিলেন কাটার স্পেশালিস্টের তকমা পাওয়া মুস্তাফিজ। রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে পুরো ৭টি ম্যাচ খেলে মিতব্যয়ী বোলিংয়ে ৮ উইকেট শিকার করেছিলেন তিনি। এছাড়া বৈচিত্রের জাদুতে নজর কেড়েছিলেন সবার।

আইপিএলের এবারের আসর যথারীতি ঘরের মাঠে শুরু হলেও করোনার প্রকোপে মাঝপথেই তা স্থগিত হয়ে যায়। তবে সে সময় করোনার কারণে বাড়তি সতর্কতা হিসেবে দর্শকশূন্য গ্যালারিতেই মাঠে গড়িয়েছিল এবারের আসর। এবার বদলাতে যাচ্চে সেই ছবি। প্রিয় দলের জন্য মাঠে বসে গলা ফাটাতে পারবেন দর্শকরা।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘দুটি টিকা নেওয়া থাকলে দর্শকরা মাঠে ঢুকতে পারবেন।’ আরও জানা গেছে, ‘যদি কারও দুই ডোজ টিকা নেওয়া থাকে তাহলে মাঠে এসে খেলা দেখতে পারবেন। তবে সেই টিকা অবশ্যই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) তালিকাভুক্ত হতে হবে।’

সেপ্টেম্বর ১৩.২০২১ at ১০:৪৫:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/সনি/জআ