চিতলমারীতে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত-৪, নৌকা প্রতীকের অফিস ভাংচুর

বিজ্ঞাপন

বাগেরহাটের চিতলমারীতে নির্বাচনী সহিংসতায় দুই পক্ষের ৪ জন আহত হয়েছেন। এ সময় নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করা হয়েছে।

রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার বারাশিয়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের চিতলমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নৌকা প্রতীকের অফিস ভাংচুরের খবরে এদিন সন্ধ্যায় সাবেক ভাইস চেয়াম্যান মোঃ রাশেদ পুকুলের নেতৃত্বে কয়েক হাজার কর্মী নৌকার পক্ষে মিছিল করেন। এ রিপোর্ট লেখা কালীন থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মো. নিজাম উদ্দিন শেখ বলেন, রবিবার বিকালে বারাশিয়া বাজারে আমার নির্বাচনী অফিসে কর্মি-সমর্থকরা বসেছিল। এ সময় বিদ্রোহী প্রার্থী মো. সাহেব আলী ফরাজীর লোকজন আমার অফিসে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। পরে তাঁরা মারপিট দিয়ে আমার কর্মি সিদ্দিক মোল্লা (২৮), তুহিন শেখ (২২) কে আহত করেছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস মার্কার মো. সাহেব আলী ফরাজী বলেন, নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী অফিস ভাংচুরের প্রশ্নই ওঠে না। আমার কিছু লোকজন আনারসের লিফলেট বিতরণ করতে গেলে মো. নিজাম উদ্দিন শেখের কর্মীরা মারপিট করে। তাঁদের মারপিটে আমার কর্মী জাহাঙ্গীর হোসেন ফরাজী (৪২) ও জুয়েল শেখ (২১) আহত হয়েছেন।

আরো পড়ুন:
চৌগাছায় শিশু শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ ছাত্রলীগের
বাড়ি দখলের জন্য রাজারবাগের পীর দিল্লুর রহমানের ‘কেরামতি’, স্তম্ভিত আদালত

চিতলমারী স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. মামুৃন হাসান জানান, আহতদের মধ্যে সিদ্দিক মোল্লাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

চিতলমারী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. ইকরাম হোসেন জানান, পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে। অভিযোগ হয়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সেপ্টেম্বর ১২.২০২১ at ২০:৫৮:০০ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/সসম/জআ