শিবগঞ্জে ঈদের দিন মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

বিজ্ঞাপন

বগুড়ার শিবগঞ্জে অষ্টম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্ত মাদ্রাসা শিক্ষককে গ্রেফতার করার জন্য অভিযান শুরু করেছে।

মামলা সুত্রে জানা যায়, শিবগঞ্জ পৌর এলাকার চকভোলাখাঁ গ্রামের দরিদ্র অটো ভ্যান চালকের শিবগঞ্জ মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী (১৪) কে ঈদের দিন দুপুরে মেয়েটি তেঘরী গ্রামে নানার বাড়ী থেকে বাড়ি ফেরার পথে একই এলাকার আজাহার আলীর ছেলে চকভোলাখাঁ ফোরকানিয়া ছিদ্দিকিয়া কওমী মাদ্রাসার শিক্ষক রাফিউল ইসলাম (২৫) মাদ্রাসায় নিয়ে গিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে।

এ সময় শিক্ষকের অনুগত কয়েকজন মাদ্রাসার জানালা দিয়ে ভিডিও চিত্র ধারণ করে বলে করে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার শিবগঞ্জ থানায় লম্পট শিক্ষককে আসামী করে থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে। সরেজমিনে ওই গ্রামে গেলে নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক অনেকে বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষকের স্ত্রী, সন্তান থাকা স্বত্বেও সে ইতিপূর্বে ৩/৪টি এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছেন।

এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বলেন, মামলা দায়েরের পর অভিযুক্তকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান শুরু হয়েছে। ভিকটিমকে পরিক্ষার জন্য মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে। ভিডিও ধারণ সমন্ধে তিনি বলেন তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। প্রমাণ পেলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জুলাই,২৩.২০২১ at ২২:২২:৪২ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এমটি/এসআর