সালমান খানের বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগ

সালমান খান
বিজ্ঞাপন

আইনি জটিলতা আর সালমান খান। একই মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ। বহুবার আইনি ঝামেলার পড়েছেন বি-টাউনের এ সাল্লু ভাই। কখনো ঝামেলা মিটিয়ে ফেলেছেন সহজে আবার কখনো যেতে হয়েছে জেল পর্যন্ত।

এবার জালিয়াতির অভিযোগ করা হয়েছে সালমান খানের নামে। তার সঙ্গে সালমান খানের বোন আলভিরা খানসহ আরও ছয়জনের নামে সমন পাঠিয়েছে পুলিশ। আগামী মঙ্গলবারের (১৩ জুলাই) মধ্য সমনের জবাব দিতে বলা হয়েছে। অভিযুক্তরা সবাই সালমান খানের ‘বিং হিউম্যান ফাউন্ডেশন’ এর সদস্য। খবর এবিপি আনন্দ।

‘বিং হিউম্যান ফাউন্ডেশন’ মূলত একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠান। ২০০৭ সালে এটি প্রতিষ্ঠা করেন সালমান খান। ভারতের পিছিয়ে পড়া মানুষের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করে এ প্রতিষ্ঠানটি। যদিও অভিযোগের বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কিছুই জানায়নি ‘বিং হিউম্যান ফাউন্ডেশন’।

সালমানসহ আটজনের নামে অভিযোগটি করেছেন অরুণ গুপ্ত নামের এক ব্যবসায়ী। অভিযোগ পত্রে তিনি জানান, তিন কোটি ভারতীয় রুপি ব্যয়ে একটি বিশেষ শোরুম খোলা হয়েছিল বিং হিউম্যান জুয়েলারি ব্র্যান্ডের জন্য। অরুণকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল সালমানের ওই প্রতিষ্ঠান থেকে। কিন্তু অনেক সময় পার হলেও শোরুমের কোনো মালামাল পাঠানো হয়নি।

অরুণ গুপ্ত আরও জানান, দেড় বছর আগে শোরুমটি খুলেছিলেন। সালমান খানের সঙ্গেও দেখা করেছিলেন এ ব্যবসায়ী। সমস্যা সমাধানে আশ্বস্ত করেছিলেন বলিউড ভাইজান। শোরুমের মালামাল পাঠানোর কথা একাধিকবার বলার পরও কাজ হয়নি। বাধ্য হয়ে তাই আইনের দ্বারস্থ হয়েছেন অরুণ।

আরো পড়ুন:
২০ জুলাই সৌদি আরবে ঈদুল আজহা, জানালেন সৌদি সরকার
রূপগঞ্জ ট্রাজেডি: নিহতের প্রত্যেক পরিবার পাবে ২ লাখ টাকা

ভারতের চণ্ডীগড় থানায় অভিযোগ করেছিলেন অরুণ গুপ্ত। তার অভিযোগের ভিত্তিতের সালমানসহ আটজনকে সমন পাঠানো হয়েছে। চণ্ডীগড় থানার এসপি কেতন বনশাল ভারতীয় সংবাদমাধ্যকে জানান, ১৩ জুলাইয়ের মধ্যে তাদের জবাব দিতে বলা হয়েছে। সমনের জবাব দেওয়া পর বাকি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জুলাই,১০.২০২১ at ১২:২৬:৪২ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এমটি/এসআর