কোপা আমেরিকায় তৃতীয় হলো কলম্বিয়া

বিজ্ঞাপন

তৃতীয় হয়ে আসর শেষ করলো কলম্বিয়া। স্থান নির্ধারণী ম্যাচে পেরুকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। কলম্বিয়ার হয়ে জোড়া গোল করেছেন লুইস দিয়াজ। এছাড়াও একটি গোল করেন কুয়ারদাদো। আর পেরুর হয়ে গোল দুইটি করেছেন ইয়োতুন ও লাপাডুলা।

চ্যাম্পিয়নশিপের রেস থেকে ছিটকে পরা অবশ্যই কষ্টের। সেই হিসেবে এক বৃন্তের দুই দল কলম্বিয়া ও পেরু। তথাপি শেষটা ভালো করতে স্থান নির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি তারা। কোপার সব রং এখন মারাকানা ঘিরে। ব্রাসিলিয়ায় পরে থাকলো পরাজিতদের আফসোস।

শেষ ভালো যার সব ভালোও না’কি তার। কিন্তু এই ভালোর মাঝেও যে এক রাশ হতাশা। তারপরও কষ্টহাসি খোজার উপলক্ষ। ম্যাচের শুরু থেকেই সে চেষ্টা করেছেন জাপাতা লাপাডুলাররা। নিয়তি অপেক্ষায় রেখেছে। অবশেষে প্রথমার্ধের একেবারে অন্তিম ক্ষণে ইয়োতুন এগিয়ে নেন পেরুকে।

বিশ্রাম শেষে ম্যাচ শুরু করে সমতায় ফিরতে খুব একটা দেরি হয়নি কলম্বিয়ার। ৪৭ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে ফ্রি কিক পায় তারা। সেখান থেকে যে গোলটি করেছেন কুয়ারদাদো, তা মনে রাখার মত অবশ্যই।

দ্বিতীয়ার্ধে অনেক গোছানো ফুটবল খেলতে থাকে কলম্বিয়া। সমতায় ফিরে সেই খানে গতি আসে দ্বিগুণ। তারই ধারাবাহিকতায় ৬৬ মিনিটে লিডে আসে রেইনালদো রুয়েডা শিষ্যরা। চমৎকার ফিনিশিংয়ে স্কোর করেন লুইস দিয়াজ।

এই ম্যাচটায় শিরোপা গন্ধ না থাকলে কি হবে? উত্তেজনার কোন অভাব ছিলো না। তারই প্রমাণ মেলে ৮২ মিনিটে পেরু স্কোর করলে। কর্নার থেকে পাওয়া বল নিখুঁত ভাবে মাথা ছুঁইয়ে লাপাডুলা তা পাঠিয়ে দেন কলম্বিয়ার জালে। জমে উঠে ম্যাচ।

আরো পড়ুন:
পাবনার বেড়ায় চায়না দোয়াইর জালে অভিযান,উদ্ধার কৃত মালামাল পুড়িয়ে ধ্বংস
ভোলার চরফ্যাশনে ১০জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত, ২৫ পরিবারকে লকডাউন

স্থান নির্ধারণী ম্যাচটায় নাটকীয়তা ছিলো শেষ পর্যন্ত। ভাগ্য এদিন স্বস্তির উপলক্ষ সাজিয়ে রেখেছিলো কলম্বিয়ার জন্য। নির্ধারিত সময় পর করে ম্যাচ গিয়ে ঠেকেছিলো ইনজুরি টাইমে। টাই ব্রেক করা প্রস্তুতিও হয়তো ততক্ষণে ভেবে নিয়েছিলেন দুই কোচ। তবে হঠাৎ দৃশ্যপট বদল। সেটা লুইস দিয়াজের অসাধারণ এক গোলে।

জুলাই,১০.২০২১ at ১০:১৫:৪২ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এমটি/এসআর