কবিতা : অমরত্বের স্বপ্ন

বিজ্ঞাপন

উদ্বিগ্ন সমাজ, উদ্বিগ্ন অভিভাবক ,উদ্বিগ্ন সকলে,
এমন এক আকর্ষণ যা বয়স, সম্পর্ক,শিষ্ঠাচার,
কিছুই মানছে না,বয়সের কোন ভেদাভেদ নেই,
বাঁধন ভাঙা যৌনবিকৃতির আকর্ষণ ও ধর্ষণ
একাকার হয়ে ঢুকে পড়েছে সমাজে।

যৌনবিকৃতি ও ধর্ষণের খবর পত্রিকার পাতায় পাতায়,
কিছুতেই কমছে না,কিছুতেই কিচ্ছু করার নেই।
নৈমিত্তিক যৌনতার বা ধর্ষনের খবরে
মানুষ আর উদ্বিগ্নও হয় না,
সমাজপতিদের ব্যাভিচার নিয়ে
মানুষ আর উদ্বিগ্ন হয় না,
বিষয়টা এতোটাই ওপেন সিক্রেট
মানুষ এগুলো কে আর পত্রিকার খবর মনে করে না,
মানুষ ধরেই নিয়েছে এ গুলো প্রতিদিনের জলখাবার।

যেদিকে তাকাই হয় টাকার খেলা, নয় নারী, নয় টেন্ডার,
নয় জমি জমা, নয় আলাউদ্দীনের আশ্চর্য চেরাগ।
ভাবটা এ রকম চারপাশে
দুনিয়া মানে লুটপাট, যৌনাচার,ধর্ষণ বা অনাচার।
আজ কোন প্রজন্মই এ থেকে মুক্ত নয়।

নৈতিকতা আজ কোথায়?
লজ্জা আজ কোথায়?
মানবিকতা আজ কোথায়?
ধর্ষণকামীতার কাছে পরাজিত সমাজ,
যৌনতার কাছে পরাজিত সমাজ,
নৈতিকতার কাছে পরাজিত সমাজ,
হতে পারে না,হতে পারে না উন্নয়নের রোল মডেল।
মানব মননের উন্নয়ন ছাড়া
পারে না সফল জাতি হিসেবে দাড়াতে।

অনির্ধারিত পথ চলা
ক্রমাগত পরিবর্তনশীল জ্ঞানের সত্যকে সাথে নিয়ে
জনগণের জনসচেতনতাই ভরসা
জনগণের স্বপ্ন ই ভরসা।
যে স্বপ্নে স্কুলে, পাড়ায়, মহল্লায় মহল্লায়
চলবে খেলাধূলা, চলবে সংস্কৃতি চর্চা,
যে বেড়া জালের আকর্ষণে
ডিজিটাল বায়বীয় যোগাযোগের মোহ ছেড়ে মানুষ
ছুটে আসবে স্কুলের মাঠে ,
নয়তো পাড়ার বা মহল্লার মাঠে,
নিরাপদ চাদরে মোড়ানো চারপাশ মুখরিত পরিবেশে
মিশে যাবে মানুষে মানুষে।
আবারও মানুষ ছুটে যাবে প্রকৃতির কাছে
জড়োপদার্থের ডিভাইস ফেলে প্রাণের সঞ্চালনে তৈরী হবে লজ্জা, নৈতিকতা, মানবিকতা সম্পন্ন এক সমাজ।

এমন একটি সমাজের স্বপ্ন দেখতে হবে
যেখানে মানুষ আপন সিদ্ধি খোঁজার চেয়ে,
যেখানে মানুষ আপন স্বতন্ত্র জীবনের চেয়ে,
যেখানে মানুষ আত্মত্যাগ করার মূল্য বেশি অনুভব করবে,
যে স্বপ্নের সমাজে অমরত্বের জন্য প্রতিযোগিতা হবে,
যেখানে জীবন যাত্রার আর্দশ হবে অমরতা।।

লেখক : রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, কবি ও কলাম লেখক।