নদী দখল ও অবৈধ ভাবে মাটি ভরাট করার অভিযোগ আশরাফ প্রামানিক বিরুদ্ধে

পাবনার বেড়ায় প্রায় ৫ কোটি টাকার ঐতিহ্যবাহী সরকারি ইছামতি নদী রাতের আধারে অবৈধ ভাবে মাটি ভরাট করে করছে আশরাফ প্রামানিক, এই নদী কালের সাক্ষী হিসেবে পরিচিত।

পাবনা বেড়া পৌর শহরের পাশ দিয়ে প্রবাহিত হয়ে গেছে, নদীটির দুই পাশ দিয়ে সুন্দরয্য ঘেরা ও প্রকৃতিযেন বেড়া পৌর বাসির সবার মন কেরেছে। আশ পাশের প্রায় ১৫ টি গ্রামের মানুষ তাদের নিত্যদিনের সকল প্রয়োজন মিটাই, ইছামতি নদীর পানিতে। শকুনের চোখ পড়েছে,বৃশালিখা ঘাট দখল,অধিন নগর বিল দখল,নদী থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনসহ এলাকায় অপরাধের রাজত্ব কাযেম করছে আশরাফ প্রমানিক।

সরজমিনে গিয়ে দেখাযায় ইছামতি নদীর পৃর্ব পাশে লোহার পাইপ দিয়ে বেড়া হুরা সাগর নদী থেকে অবৈধ ভাবে ড্রেজারের মাধ্যমে বালু ফেলছে, ইছামতি নদী যার বাজার মূল্য প্রায় ৫ কোটি টাকা। সরকারি এই নদী দখল নিয়ে এলাকায় রীতিমত হৈচৈই পড়েগেছে, প্রকাশ্য দিবালকে কি ভাবে নদী দখলের মহা উৎসবে নেমেছে এই চক্রটি প্রশ্ন সাধারন মানুষের মুখে প্রশাসন কি জেনেও না জানার ভান করছে নাকি। বহুদিন ধরে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

বৃশালিখা গ্রামের রজব মোল্লা বলেন,আশরাফ আমার জমি দখল করে রাস্তা করেছে। এখন ইছামতি নদী দখল করেছে। কিছু বললে সে আমাকে হুমকি ধামকি দেয় টাকা পয়সার মালিক হয়েছে, প্রশাসন তার করর্মকান্ড দেখেও কিছু বলে না।

সাবেক ডিপুটি কমান্ডার বলেন লাল মিয়া জানান, রাতে দিনে প্রকাশ্যে সরকারি ইছামতি নদী দখল করছে। প্রশাসন বিষয় টি নজরে নিচ্ছে না কেনো।

ইছামতি নদীর আশে পাশে বসবাস কারি শরিফুল,মাজেদ,বলেন আশরাফ প্রমানিক বেড়া পৌর মেয়রের নাম ভাঙ্গিয়ে অনেক অবৈধ কার্যক্রম চালাচ্ছে। এক সময় সে ড্রেজারে বালু উত্তোলন করতো, আজ অবৈধ ভাবে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছে। আশরাফের সাথে ফোনে যোযাযোগ করা হলে তিনি সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য দেখা করতে বলেন আরো জানান মেয়ররে নিদের্শণায় মাট ভরাট করছি। জানতে চাওয়া হল এটা তো সরকারি নদী বেইনি ভাবে কেন নদী ভরাট করছেন কোন উত্তর দিতে পারেননি।

বেড়া নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সবুর আলী জানান গ্রাম বাসির পক্ষে একটি অভিযোগ পেয়েছি । রাতেই একটি ট্রাক জব্দ করেছিলাম জরিমানা করেছি। সরকারি ইছামতি নদীর রক্ষার জন্য জেলা প্রশাসক পদক্ষেপ নিবেন। আশরাফের বিরুদ্ধে নদী দখলের অভিযোগে আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এপ্রিল ০৬, ২০২১ at ১৬:১৪:৪২ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এমটি/এমআরএইস