৫৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তি আসছে

বিজ্ঞাপন

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৫৬ হাজার শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশে তোড়জোড় শুরু করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগে মামলা জটিলতা নিরসনের পর নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করতে আইন মন্ত্রণালয়ও ইতিবাচক সম্মতিও দিয়েছে। ফলে স্কুল-কলেজে চতুর্থ ধাপে প্রায় ৫৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশে আর বাধা থাকছে না। নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এনটিআরসিএ-এর চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন বলেন, ‘আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত আমরা পেয়েছি। এটি এখন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। মন্ত্রণালয়ের মতামতের ভিত্তিতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।’

আরও পড়ুন:
‘অল দ্য প্রাইম মিনিস্টারস মেন’ প্রতিবেদনটি সরাতে সোস্যাল মিডিয়াকে বিটিআরসি‘র চিঠি
প্রাথমিকের সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার

বেসরকারি শিক্ষক পদে নিয়োগের সুযোগ পেতে ১৩তম নিবন্ধনধারীরা রিট মামলা করেছিলেন। রিটকার ২ হাজার প্রার্থীকে আবেদনের সুযোগ দিতে আদালতের নির্দেশনাও আছে। এছাড়া যাদের বয়স ৩৫ বছর হয়ে গেছে তাদের আবেদনের সুযোগের বিষয়ে আদালতের নির্দেশনা আছে। এসব নির্দেশনার প্রেক্ষিতে কিভাবে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা যায় তা নিয়ে মন্ত্রণালয়ের সাথে আলোচনা করে কিভাবে কোন জটিলতা ছাড়া গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে আবেদন গ্রহণ করা যায় তার কর্মপরিকল্পনা নির্ধারণ করা হবে। আদালতের নির্দেশনাগুলো নিয়ে আলোচনার পর আগামী সপ্তাহে সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে বলে আশা করছি ।

তিনি আরও জানান, ৫৭ হাজারের কিছু বেশি অফিসিয়াল শূন্যপদের তথ্য এনটিআরসিএর কাছে আছে। এসব পদের মধ্যে থেকে ১ হাজার ২৮৪টি পদে আগের নিয়োগের ভুক্তভোগীদের নিয়োগ সুপারিশ করা হয়েছে। সে হিসেবে ৫৬ হাজারের মত শূন্যপদে নিয়োগ সুপারিশের জন্য গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।