হয়রানির মামলা প্রত্যাহার দাবিতে গণমাধ্যমের পাশে গণমানুষ

মানববন্ধনের বক্তব্য রাখছেন মিথ্যা মামলার শিকার সাংবাদিক তাশরিক সঞ্চয়।

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সাংবাদিকের নামে হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহার দাবিতে গণমাধ্যমের পাশে দাঁড়িয়েছেন এখানকার গণমানুষ। করেছেন শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন। বুধবার (১২ আগস্ট) বিকেলে উপজেলা পরিষদ বাজারে দ্বিতীয় দিনের এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন এ অঞ্চলের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল দৌলতপুর টোয়েন্টিফোর পরিবার এবং পাঠক ও শুভানুধ্যায়ীসহ বিভিন্ন স্তরের মানুষ।

সম্প্রতি উপযুক্ত তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে উপজেলার ফিলিপনগর মরিচা কলেজ পরিচালনার নানা অনিয়ম দুর্নীতির খবর প্রকাশিত হলে তার প্রেক্ষিতে মিথ্যা, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলা করান স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট শরীফ উদ্দিন রিমন। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলাটিতে বাদী করা হয় এই নেতার ভাগনে ওয়ালিউল আলম শাওনকে। মামলায় ১ নম্বর সাক্ষী হয়েছেন কলেজটির গভর্নিং বডির সদ্য বরখাস্ত সভাপতি শরীফ উদ্দিন রিমন।

এই মামলার প্রতিবাদে আগেরদিন মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দৌলতপুরের সর্বস্তরের সাংবাদিকেরা মানববন্ধন করেছেন। সম্পূর্ণ বস্তুনিষ্ঠ একটি খবর নিয়ে এ ধরনের মামলা গণমাধ্যমের জন্য হুমকি স্বরুপ উল্লেখ করে শিগগিরই মিথ্যা মামলাটি প্রত্যাহারের দাবি জানান সেখানে উপস্থিত সবাই।

মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মানববন্ধনের একাংশ।

এদিকে বুধবারের মানববন্ধনে অংশ নেয়া দৌলতপুর টোয়েন্টিফোর পরিবার, পাঠক ও শুভানুধ্যায়ীরা এই ইস্যুতে সাংবাদিকদের নেয়া সকল কর্মসূচির সাথে একাত্মতা ঘোষণা করেন। আগামী শুক্রবার (১৪ আগস্ট) স্থানীয় সাংবাদিকদের অবস্থান কর্মসূচি ঘোষণা রয়েছে সর্বস্তরের সাংবাদিকদের আয়োজনে প্রথম দিনের মানববন্ধন থেকেই।

বুধবার অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে প্রধান বক্তা সাংবাদিক তাশরিক সঞ্চয় বলেন, কঠোর কর্মসূচিতে যেতে আমরা বাধ্য হতে চাই না। স্থানীয় আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ পদধারী নেতা হয়ে অ্যাডভোকেট শরীফ উদ্দিন রিমন তার সংগঠনের গঠনতন্ত্র বহির্ভূত কাজ করেছেন। তিনি আরো বলেন, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও অবাধ প্রচার নিশ্চিতে সংগঠনই আওয়ামী লীগ নেতাদের কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন, সংগঠনই মানবাধিকার সংরক্ষণের নির্দেশ দিয়েছেন। একজন সাংগঠনিক নেতা হয়ে শরীফ উদ্দিন রিমন সেই নির্দেশ অমান্য করেছেন।

এই মানববন্ধন থেকে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অন্যান্য অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনকেও বিষয়টি আমলে নিয়ে দলীয় শীর্ষ নেতাদের আদর্শ বাস্তবায়নের আহ্বান জানান বক্তারা।

দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শরীফ উদ্দিন রিমনের নানা অনিয়ম দুর্নীতির খবর প্রকাশের পর দায়ের করা মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে দ্বিতীয় দিনের এই মানববন্ধনের সঞ্চালক ছিলেন, মাল্টিমিডিয়া নিউজ পোর্টাল দৌলতপুর টোয়েন্টিফোরের করেসপন্ডেন্ট ডেস্ক ইনচার্জ মো. আক্তারুজ্জামান। বক্তব্য রাখেন- দৌলতপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ সস্পাদক রনি আহমেদ, দৌলতপুর প্রেসক্লাব-ডিপিসির যুগ্ম সম্পাদক হেলাল উদ্দিন, দৌলতপুর টোয়েন্টিফোরের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি সেলিম রেজা, নাগরিক সাংবাদিক মুক্তিযোদ্ধার সন্তান তন্ময় হক প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, দৌলতপুর উপজেলার ফিলিপনগর মরিচা ডিগ্রি কলেজের ম্যানেজিং কমিটির বিতর্কিত সভাপতি, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট শরীফ উদ্দিন রিমনকে কলেজটির সভাপতির পদ থেকে ইতোমধ্যে বরখাস্ত করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।