চৌগাছায় দুই সন্তানের জননীর আত্মহত্যা, পিতার দাবি হত্যা

যশোরের চৌগাছায় লাইলাতুল জান্নাত (৩৪) নামে দুই সন্তানের জননী বিষপানে আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তবে নিহতের পিতার দাবি জোর করে মুখে বিষ ঢেলে তাকে হত্যা কার হয়েছে। নিহত লাইলাতুল জান্নাতের পিতা সংশ্লিষ্ঠ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। পুলিশ মরাদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

আরো পড়ুন :
সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে রায়পুরে কাঁচাবাজার স্থানান্তর
করোনাযুদ্ধেও এক যোদ্ধার ভুমিকা রেখে যাচ্ছেন সোহেল আহমেদ
শিবগঞ্জে চৌধুরী পরিবারের পক্ষ থেকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

সূত্র জানায়, প্রায় ১৫ বছর আগে উপজেলার স্বরূপদাহ ইউনিয়নের তিলকপুর গ্রামের এনামুল কবির ওরফে ইসমাইলের সাথে নড়াইল জেলার মহেশখোলা গ্রামের এ্যাডঃ তাইয়েব আলীর মেয়ে লাইলাতুল জান্নাতের বিয়ে হয়। ৭ম শ্রেণি পড়ুয়া ইশরাক ও ২ মাস বয়সের ইশান নামে দুটি সন্তান আছে তাদের।

বৃহস্পতিবার ইফতারের পর লাইলাতুল জান্নাত তার বড় ছেলের কাছে ছোট ছেলে রেখে ঘরের দরজা বন্ধ করে বিষপান করে। ওই রাতেই তাকে উদ্ধার করে প্রথমে চৌগাছা হাসপাতালে পরে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তার স্বাস্থ্যের কোন উন্নতি না হলে চিকিৎসকরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন। শুক্রবার রাতেই ঢাকা নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। নিহতের স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির সকলেই পারিবারিক কলহে সে বিষপান করেছে দাবি করলেও পিতা এ্যাড. তাইয়েব আলীর দাবি তার মেয়েকে জোরপূর্বক মুখে বিষ ঢেলে হত্যা করা হয়েছে।

চৌগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি রিফাত খান রাজিব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পরই কেবল বলা যাবে কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে।

মে ০২, ২০২০ at ১৭:৫৯:৪২ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এমআই/এএডি