রাণীশংকৈলে এক ছাত্রীর লাশ উদ্ধার

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে গলায় ফাঁস লাগা অবস্থায় ২৯ এপ্রিল বুধবার নবম শ্রেণির ছাত্রী শারমিনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শারমিন (১৪) উপজেলার বলিদ্বারা তেঘরিয়া গ্রামের মেয়ে এবং সে স্থানীয় একটি স্কুলে নবম শ্রণিতে পড়ালেখা করতো। পারিবারিক সূত্রমতে সে গত মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) রোযা ছিল। ইফতার শেষে খাওয়া দাওয়া করে রাতে সবাই ঘুমাতে যায়। পরে রাত ১২ টার দিকে তার ভাই বাথরুমে যাওয়ার জন্য বের হলে তাকে বাড়ীর রান্নাঘরের নিকট আম গাছের ডালের সাথে দড়ি দিয়ে গলাঁয় ফাঁসরত অবস্থায় দেখতে পেয়ে, চিৎকার দিয়ে তার কাছে যেতে যেতেই ছটপট করতে করতে সে মৃত্যু বরণ করেন। পরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জমিরুল ইসলামকে ফোন দিয়ে জানালে। তিনি থানায় ফোন দেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্বার করে থানায় নিয়ে যান।

আরো পড়ুন :
আর্স বাংলাদেশ ও মনোয়ারা বেগম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
আশ্রয়ন এর সুবিধা বঞ্চিত মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা বিতরণ
চুয়াডাঙ্গায় ৩৫০টি অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

কি কারণে শারমিন গলায় দড়ি দিয়েছেন, এ বিষয়ে ভাই সানোয়ারসহ তাঁর পরিবারের লোকজন কিছু বলতে পারেননি।
থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মান্নান বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় আনে ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রির্পোট আসার পর আত্মহত্যার কি না তাঁর সঠিক তথ্য পাওয়া যাবে।

এপ্রিল ২৯, ২০২০ at ২০:১১:৪২ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এইচকে/এএডি