লালপুরে কঠোর অবস্থানে পুলিশ প্রশাসন

নাটোরে প্রথম ৮জন করোনাভাইরাস রোগী শনাক্ত হয়েছে। তবে লালপুর উপজেলা এখনো করোনা মুক্ত রয়েছে। বুধবার (২৯ এপ্রিল) সকাল থেকে লালপুর উপজেলাকে করোনা মুক্তরাখতে পূর্বের যেকোনো সময়ের তুলনায় পুলিশ প্রশাসনকে কঠোর অবস্থানে থাকতে দেখা যায়।

মানুষকে ঘরে রাখতে লালপুর উপজেলার প্রবেশদ্বার উপজেলার ওয়ালিয়া-লালপুর সড়কে সকাল থেকে ছিলো পুলিশের কঠোর নজরদারি। রাস্থায় চলাচলকারী অটোভ্যান, ট্রাক, প্রাইভেটকার, মটোরসাইকেলে থামিয়ে তল্লাশি ও প্রয়োজন ছাড়া চলাচল কেন করছেন এমন প্রশ্ন করেন পুলিশ সেই সাথে প্রয়োজন ছারা রাস্থা থাকা মানুষকে বাড়িতে ফিরিয়ে দিতে দেখা গেছে। এছাড়াও পায়ে হেটে রাস্তায় চলাচলকারী দেরেও ঘরে থাকতে করোজরে অনুরোধ করতে দেখা গেছে পুলিশকে।

সেই সাথে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করতে নিয়োমিত বাজার মনিটরিং করছে উপজেলা প্রশাসন। পাশাপশি সামাজিক দুরত্ব ও ঘরে থাকা নিশ্চিত করতে লালপুর থানা পুলিশ নিয়োমিত উপজেলা জুড়ে চালাচ্ছে মাইকিং, প্রতিটি এলাকায় দিচ্ছে টহল। পুলিশের সঙ্গে মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী।
তারা প্রতিনিয়োত উজেলা বাসির ঘরে থাকা নিশ্চিত করতে প্রতিটি সড়কে চালাচ্ছে টহল, হাতে প্লেকার্ড, মুখে মাইক নিয়ে জনসচেতনাতায় বিভিন্ন ভাবে ঘরে অবস্থান করার জন্য অনুরোধ করছে।

এদিকে করোনা ভাইরাসের সংক্রামণ রোধে গত ২৪ মার্চ থেকে শুরু করে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ওষুধ ও খাদ্য সামগ্রীর দোকান ব্যতীত হাট-বাজার, দোকানপাট, বিপণিবিতান, গণপরিবহ, মিল-কল কারখানা বন্ধ করতে দেশ ব্যাপী সরকারী নির্দেশনা দিয়েছে প্রশাসনকে। সামাজিক দুরত্ব নিশ্চি করতে উপজেলার সকল সাপ্তাহিক হাট বসানো হয়েছে খোলা মাঠে।

মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টার দিকে নাটোর জেলা সিভিল সার্জন বরাবর আইইডিসিআর থেকে পাঠানো এক মেইল বার্তায় একযোগে নাটোরে আটজনের করোনা আক্রান্তের খবরের তথ্য নিশ্চিত করা হয়।
নাটোর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বুধবার (২৯ এপ্রিল) কাউকেই বাড়ি থেকে বের না হতে বলা হয়েছে। সকাল থেকেই পূর্বের যেকোনো সময়ের তুলনায় কঠোর অবস্থানে থাকার ঘোষণা দিয়েছে পুলিশ।
ওয়ালিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনর্চাজ শাহেদ আল মামুন ইনকিলাব বলেন, ‘লালপুর কে করোনা মুক্ত রাখতে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। সবাইকে ঘরে থাকতে অনুরোধ করা হচ্ছে।’

লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মুল বানীন দ্যুতি বলেন, ‘লালপুরে এখনো কোন করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি। তবে লালপুরকে করোনা মুক্তরাখতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন। মানুষকে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করে ঘরে রাখতে পুলিশ, প্রশাসন ও সেনাবাহিনী যৌথ ভাবে কাজ করছে।’

এপ্রিল ২৯, ২০২০ at ১৮:২৪:৪২ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/এটি/এএডি