মাদক মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামির পরিবারের পাশে পুলিশ সুপার

মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামীর পরিবারের পাশে দাড়িয়ে চরম মানবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। রোববার তিনি খাদ্য সামগ্রী দেন বলে বিকালে এক বিঙ্গপ্তিতে জানাগেছে।

বিঙ্গপ্তিতে আরো জানাগেছে একের পর এক মানবিকতার চরম দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। রোববার সকাল ১১.১২ মিনিটে পুলিশ সুপারের ফোনে একটি কল আসে। কলটি রিসিভ করতেই অপরপ্রান্ত থেকে একটি মহিলার কন্ঠ, তিনি কাতর স্বরে বলেন তার স্বামী জিলাম হোসেন মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে গত তিন বছর যাবৎ জেলা কারাগারে আটক আছেন

আরো পড়ুন :
শিবগঞ্জে কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
চট্টগ্রামে ১১০টি পোশাক কারখানা খুলে দেয়া হয়েছে
গাইবান্ধায় ত্রাণের দাবিতে রাস্তায় ক্ষুধার্ত মানুষের অবস্থান

দেশের চলমান লক ডাউন এর ফলে সে বাড়ী থেকে বের হতে পারছেন না বিধায় তার ঘরে খাবার নাই। বিষয়টি জানতে পেরে তৎক্ষনাৎ পুলিশ সুপার তার বাড়ীতে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। জাহিদুল ইসলাম চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করার পর থেকে মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন এবং মাদক নির্মূলে নানামূখী কৌশল অবলম্বন করেন। অথচ মাদক মামলায় সাজা প্রাপ্ত একজন আসামীর পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে তিনি মানবিকতার এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন। তিনি আবারও প্রমান করলেন মানবিকতার চেয়ে বড় আর কিছু হতে পারে না।

পুলিশ সুপার জানান, অন্যায় করলে স্বামী করেছে, স্ত্রী তো করেনি, আর তাছাড় আমি কাউকে ত্রাণ দিইনা, খাদ্য সহায়তা দিই। মানুষ হয়ে মানুষের পাশে দাড়ানো আমার কর্তব্য। তাই আমি পাশে দাড়িয়েছি।

এপ্রিল ২৬, ২০২০ at ১৭:৪৩:৪২ (GMT+06)
দেশদর্পণ/আক/টিআর/এএডি