বাদী পক্ষের মারপিটে প্রধান আসামীর মৃত্যু

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কুলবাড়ীয়া গ্রামের মামলার বাদী পক্ষের মারধরে আহাদ আলী নামের এক আসামীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর উপজেলার কুলবাড়ীয়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আহাদ আলী কুলবাড়ীয়া গ্রামের মৃত মসলেম উদ্দিনের ছেলে।

নিহতের বোন জামেনা খাতুন অভিযোগ করেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে কুলবাড়িয়া বাজারে বসে ছিলো ধর্ষন চেষ্টা মামলার প্রধান আসামী আহাদ আলী। এ সময় মামলার বাদী প্রতিবেশী নিছার উদ্দিন লোকজন সাথে নিয়ে তাকে ধরে বাজারে পেছনের কলাবাগানে গিয়ে মারধর করে। পরে সেখানে সে অসুস্থ হলে তারা আহাদ আলীকে পুলিশে সোপর্দ করে। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক আহাদ আলীকে মৃত ঘোষনা করে। পরে তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় দোষিদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবী করেছেন নিহতের স্বজনরা।
আরও পড়ুন: ২১ বছরেও শাস্তি পেলো না উদীচী হত্যাযজ্ঞের খলনায়কেরা

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস বলেন, আহাদ আলীর মৃত্যুর ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়া গেলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া আহাদের পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত রোববার বাদীর এক স্বজন আহাদের বাড়ীতে গেলে সে ধর্ষন চেষ্টা করে বলে অভিযোগ এনে থানায় মামলা করে। এ ঘটনার পর থেকে আহাদ আলী পলাতক ছিল।

দেশদর্পণ/কেএল/এসজে